প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে বিরোধী দলনেতা, টুইটারে খোঁচা কংগ্রেসের

65

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: ঘূর্ণিঝড় ইয়াস পরবর্তীকালে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন শেষে পর্যালোচনা বৈঠক সারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। প্রশাসনিক ওই বৈঠকে ডাক পেয়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ঘটনা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে গুজরাতের কংগ্রেস নেতারা প্রশ্ন তোলেন, তাউকতাই পরবর্তীকালে প্রশাসনিক বৈঠকে স্থানীয় বিরোধী দলনেতাকে কেন ডাকা হল না। ঘটনায় জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

- Advertisement -

ইয়াস পরবর্তী পরিস্থিতি সরজমিনে খতিয়ে দেখতে শুক্রবার রাজ্য সফর শেষে প্রশাসনিক বৈঠক সারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রশাসনিক বৈঠকে ডাক পেলেও ব্যস্ততার দরুন বৈঠকে অনুপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। প্রধানমন্ত্রীর ডাকা প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর অনুপস্থিতিকে কেন্দ্র করে সমালোচনার সুর চড়ান গেরুয়া শিবিরের নেতা-মন্ত্রীরা। তবে মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়েছেন কংগ্রেস নেতৃত্বরা। এই পরিস্থিতিতে গুজরাতের কংগ্রেস নেতা ভরত সোলাঙ্কি মোক্ষম প্রশ্ন তুলে ধরেন তাঁর টুইটে।

টুইট করে তিনি লেখেন, শুনে ভালো লাগছে, ঘূর্ণিঝড় ইয়াস পরবর্তীকালে ক্ষয়ক্ষতি ইস্যুতে বৈঠকে বাংলার বিরোধী দলনেতাকে ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে, সম্প্রতি তাউকতাই পরবর্তীতে গুজরাত পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রী কীভাবে ভুলে গেলেন স্থানীয় বিরোধী দলনেতাকে আমন্ত্রণ জানাতে।