দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনা টিকা নেওয়ার সম্ভাবনা মোদির

239

নয়াদিল্লি: দেশজুড়ে করোনা টিকাকরণ প্রক্রিয়ার দ্বিতীয় পর্যায়ে টিকা নিতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদেরও টিকা দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। গত শনিবার থেকে শুরু হওয়া টিকাকরণ প্রক্রিয়ায় দেশে তিন কোটি টিকা দেওয়া হবে স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, সাফাইকর্মী সহ প্রথমসারির করোনা যোদ্ধাদের। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী এখন পর্যন্ত মোট ৭ লক্ষের বেশি স্বাস্থ্যকর্মীকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে টিকাকরণ শুরু হতে পারে আগামী মার্চ অথবা এপ্রিল মাসে।

করোনার টিকাকরণের দ্বিতীয় পর্যায়ে সেনা, আধাসেনা ও ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে যাঁদের বয়স তাঁদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। সেই তালিকায় রয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী সহ দেশের অধিকাংশ মুখ্যমন্ত্রীর নাম। টিকা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় মোদি জানান, টিকা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। দ্বিতীয় পর্যায়ে ৫০ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে টিকা দেওয়া হবে।

- Advertisement -

১৬ জানুয়ারি শুরু হয়েছে বিশ্বের সবথেকে বড় গণটিকাকরণ অভিযান। খুব কম সময়ে জোড়া ভ্যাকসিন তৈরি হয়েছে দেশে। তার জন্য বিজ্ঞানীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, টিকার প্রথম ডোজের ২৮ দিন পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে। দেশ তথা বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণের পর থেকেই বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে গবেষণা। করোনার বিরুদ্ধে লড়তে অক্লান্ত পরিশ্রম চালিয়েছেন গবেষকরা। গবেষকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন বাজারে আনতে পেরেছে ভারত। প্রথম পর্যায়ের মতো দ্বিতীয় পর্যায়েও দুটি টিকাই ব্যবহার করা হবে।