‘আয়ুষ্মান ভারত সেহাত’ প্রকল্পের সূচনা অনুষ্ঠানে বাংলাকে খোঁচা মোদির

253

নয়াদিল্লি: শুক্রবারের পর শনিবারও একইভাবে বাংলাকে নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার জম্মু ও কাশ্মীরের জন্য ‘আয়ুষ্মান ভারত সেহাত’ প্রকল্প চালু করতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সূচনা অনুষ্ঠানে প্রকল্পের সুবিধের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশের সব জায়গায় এই প্রকল্পের কার্ড দিয়ে চিকিৎসা করাতে পারবেন। দেশের ২৪০০ হাসপাতালে চিকিৎসা করানো যাবে। শুধু কলকাতায় এই প্রকল্পের সুবিধে পাবেন না। কারণ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই প্রকল্প চালু করেনি। কিছু মানুষ বুঝতে চায় না। কী আর করা যাবে।’ প্রসঙ্গত, ‘আয়ুষ্মান ভারত’ প্রকল্প এরাজ্যে চালু করেনি রাজ্য। সরকারের দাবি, রাজ্যের মানুষদের জন্য রয়েছে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প। এতে সুবিধে অনেক বেশি।

- Advertisement -

আয়ুষ্মান ভারত সেহাত প্রকল্পের সুফলের কথা টেনে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, শুধু মাত্র নিজের এলাকা বা রাজ্যেই নয়। দেশের অধিকাংশ রাজ্যে এই কার্ড দেখিয়ে চিকিৎসা পরিষেবা পেতে পারেন। ধরুন আপনি মুম্বইয়ে গিয়েছেন। সেখানে কোনও সমস্যায় পড়লেন। ওই কার্ড দেখিয়ে চিকিৎসা করাতে পারবেন। শুধুমাত্র সরকারি হাসপাতালেই নয়, ওই প্রকল্পের আওতায় থাকা বেসরকারি হাসপাতালেও চিকিৎসার সুবিধে পাবেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবারই এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দেশের ৯ কোটিরও বেশি কৃষককে প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধির ১৮০০০ কোটি টাকা প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ওই অনুষ্ঠানে নয়া কৃষি আইনের প্রসঙ্গ টেনে তৃণমূল কংগ্রেস সহ বিরোধীদের তুলোধনা করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘বাংলায় কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্প চালু করা হয়নি। এর ফলে বঞ্চিত হয়েছেন রাজ্যের ৭০ লাখেরও বেশি কৃষক। সেই তৃণমূল দিল্লিতে গিয়ে কৃষকদের কৃষি আইন নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে। তাদের পাশে থাকার বার্তা দিচ্ছে। কেউ প্রশ্ন করছে না। কেরলে বাম সরকার রয়েছে। সেখানে কিষাণ মান্ডি চালু করা হয়নি কেন!দয়া করে নিজেদের রাজনৈতিক আখেরের স্বার্থে কৃষকদের ব্যবহার করবেন না।’