লকডাউন অমান্যকারী টোটো এবং বেপরোয়া বাইক চলাচল রুখতে অভিযান পুলিশের

304

পতিরাম, ৪ মেঃ তৃতীয় পর্যায়ের লকডাউন শুরু হতে সোমবার টোটো চালকদের বিরুদ্ধে ব্যপক অভিযানে নামলো পতিরাম পুলিশ। সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে যাত্রী তোলা এবং যত্রতত্র টোটো গাড়ি রেখে দিয়ে ভিড় ও যানজট তৈরি করার অভিযোগে পতিরাম চৌরঙ্গী মোড়, তালতলা, কদমতলী, তিনকোনা মোড়, পার পতিরাম সহ একাধিক জায়গায় পতিরাম ফাঁড়ির ওসি দেবব্রত মিশ্র নেতৃত্বে টোটো বিরোধী অভিযান চলে। লকডাউনের মধ্যে পুলিশি অভিযানে পতিরাম সহ সংলগ্ন এলাকায় টোটো চালক এবং লকডাউন অমান্যকারীদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়ায়। অবশ্য পুলিশের এই সচেতনতাকে এলাকার সচেতন নাগরিক ও সাধারণ মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছেন।

লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব অমান্যকারী টোটো চালকদের বিরুদ্ধে এদিনের অভিযানে খবর লেখা পর্যন্ত ১৭ টি টোটো আটক করে পুলিশ নিজেদের হেপাজতে রেখেছে। এদিন অন্তত আরও ৬০ টোটো পুলিশের তাড়া খেয়ে বিভিন্ন দিকে পালিয়ে যায়। একইসঙ্গে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরার বিষয়টিও পুলিশ কর্তারা অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে দেখছেন। পাশাপাশি বেপরোয়া বাইক চালানো ও সামাজিক দূরত্বকে আমান্য করে, বাইকে একাধিক আরোহী থাকার কারণেও, বেশ কয়েকটি বাইক আটক করে পুলিশ। পুলিশি তৎপরতায় করোনা আবহে সাধারণ মানুষ মাস্ক পরে সামাজিক দূরত্ব মানতে এক প্রকার বাধ্য হচ্ছেন। তবে ইতিবাচক ভূমিকার জন্য পতিরাম পুলিশের এই কাজকে আশীর্বাদ হিসাবে ভাবছেন পতিরামের সচেতন নাগরিকবৃন্দ।

- Advertisement -

এবিষয়ে পতিরাম ফাঁড়ির ওসি দেবব্রত মিশ্র জানান, সামাজিক দূরত্ব অমান্যকারী ও লকডাউনের নিয়ম ভঙ্গকারী অভিযানে আটককৃত টোটো ও বাইক ২ দিন রাখার পর শর্ত সাপেক্ষে ছেড়ে দেওয়া হবে। করোনা মহামারী থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করতে পুলিশের এই পদক্ষেপ বলে তিনি জানিয়েছেন। তিনি আরও জানান, পতিরাম পুলিশের এই অভিযান আগামীদিনে জোরদার ও ব্যাপকভাবে চালানো হবে।