পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রবেশ নিয়ে সমস্যা এড়াতে পুলিশি টহল

281

তুফানগঞ্জ, ৯ মেঃ ভিন রাজ্যে এবং বাইরের জেলাতে যেসকল শ্রমিকরা কাজ করতে গিয়েছিলেন, তাঁদের ফেরাতে রাজ্য সরকারের তরফে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরইমধ্যে বর্ধমান জেলা থেকে ৯টি বাস উত্তরের জেলাতে আসার জন্য শ্রমিকদের নিয়ে রওনা দিয়েছে। এত শ্রমিকদের কোথায় রাখা হবে, তা নিয়েও শুরু বিস্তর আলোচনা শুরু হয়েছে।

প্রশাসনিক সূত্রের খবর, পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের নিজেদের বাড়িতেই হোম কোয়ারান্টাইনে রাখা হবে। সরকারি নির্দেশ অনুসারে, তাঁদের লালারসও পরীক্ষা করা হবে। তুফানগঞ্জ ১ নম্বর ব্লকে মোট ৪টি কোয়ারান্টাইন সেন্টার রয়েছে। সেগুলিতে অন্যান্য শ্রমিকরা থাকায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

- Advertisement -

অন্যদিকে, খবর প্রকাশিত হতেই, এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধীতা করেছেন। পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায়। এলাকাবাসীদের দাবি, শ্রমিকদের বাড়িতে না রেখে, অন্যকোথাও রাখলে, সকলের উপকার হবে। শ্রমিকদের ফিরে আসা নিয়ে সমস্যা এড়াতে, এদিন নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের চামটা এলাকায় পুলিশ টহল শুরু করেছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের হোম কোয়ারান্টাইনে থাকতে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, সে জন্য নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের সঙ্গে পুলিশ আধিকারিকরা আলোচনাও করেছেন।

নাককাটি গাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শচীন্দ্রনাথ বর্মন জানিয়েছেন, শনিবার দুপুরে তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ তাঁর সঙ্গে দেখা করেন। রবিবার থেকে এলাকায় আসবে পরিযায়ী শ্রমিকরা। সরকারী নির্দেশে তাঁদের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে বাড়িতে। তবে, এত শ্রমিককে কোয়ারান্টাইন সেন্টারে রাখার জায়গা নেই। যারা আসবেন, তাঁদের বাড়িতে পাঠানো হবে। যাতে কোন সমস্যা না হয়, সেদিকে নজর রাখা হবে।