দুই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ে পোস্টারকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য

457

রায়গঞ্জ, ৫ অগাস্টঃ রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দুই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগে পোস্টার পড়লো। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো। খবর পেয়ে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। বেলা বাড়তেই সেই পোস্টারগুলি একে একে উধাও হয়ে যায়। কে বা কারা ওই পোস্টার লাগালো, আর কেই বা খুলে নিয়ে গেলো তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটে নি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এধরনের পোস্টার লাগানোর ঘটনায় ইতিমধ্যেই পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গিয়েছে, এদিন রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বাইরের দেওয়ালে, কয়েকটি জায়গায় অধ্যাপক তাপস মহন্ত ও অশোক দাসের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে, রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের লুটপাট করে নেওয়া টাকা এবং কাটমানির টাকা অবিলম্বে অভিযুক্ত অধ্যাপক ফেরত করুক। বেআইনিভাবে নিযুক্ত বহিরাগত ও পোষ্য চুক্তিভিত্তিক শিক্ষা কর্মীদের অবিলম্বে বরখাস্ত করতে হবে। অধ্যাপকদের ঠিকাদার ব্যবসায়ী মনোবৃত্তি দূর করে, ছাত্রছাত্রীকে পঠন পাঠনের দিকে মনোনিবেশ করতে হবে।

- Advertisement -

অধ্যাপক অশোক দাস ও তাপস মহন্ত জানিয়েছেন, একদল দুষ্কৃতী ইচ্ছাকৃতভাবে তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে পোস্টার লাগিয়ে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা করেছে। তাদের দাবি, পড়ুয়াদের জন্য তারা যথেষ্ট কাজ করেন। তাই অনেকে তাদের সন্মান নষ্ট করতে চাইছে। তারা আরও জানান, তারা এসবকে পাত্তা দেন না। বরং উপাচার্যকে অনুরোধ করেছেন, পুলিশ তদন্ত করে দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার করুক।

এই প্রসঙ্গে টেলিফোন মারফৎ যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, দুই অধ্যাপকের বিরুদ্ধে যারা পোস্টার দিয়েছে, সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে পুলিশকে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার আর্জি জানানো হয়েছে।