২ মে’র পর তৃণমূলকে বনবাস দেবে বাংলার জনতা: প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল

74

গঙ্গারামপুর: গঙ্গারামপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সত্যেন্দ্রনাথ রায়ের সমর্থনে শুক্রবার ভোট প্রচার করলেন কেন্দ্রীয় তথ্য সংস্কৃতি ও পর্যটন মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল। নির্বাচনি পথসভায় কেন্দ্রীয় তথ্য সংস্কৃতি ও পর্যটনমন্ত্রীর পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার, বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গৌতম চক্রবর্তী, বিজেপির সহ-সভাপতি প্রদীপ সরকার, বিজেপি মহিলা মোর্চার সভানেত্রী স্মৃতিকণা দাস, গঙ্গারামপুর শহর মন্ডল সভাপতি মনিরত্নম সাহা সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব।

এদিনের পথসভার প্রথমে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক ইস্যুতে তোপ দাগেন। তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে কাটমানি তোলাবাজির অভিযোগ তুলে একাধিকবার সরব হন। পাশাপাশি আগামী ১৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় অংশগ্রহণ করার জন্য বিজেপিকর্মী সমর্থকদের আহ্বান জানান। এ প্রসঙ্গে বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘বিগত দিনে সাংসদ উন্নয়ন কোটার টাকা জেলা প্রশাসনকে দেওয়ার পরেও কোনও কাজ করেনি। তবে, বর্তমানে হাওয়া বদল হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হতেই জেলা প্রশাসন তথা জেলাশাসক সাংসদ কোটার কাজ করতে শুরু করেছে। সাংসদ কোটার কাজ নিম্নমানের করা হলে বাধা দিন, প্রয়োজনে বরাদ্দপ্রাপ্ত ঠিকাদারকে ধোলাই দিয়ে সঠিক কাজ করিয়ে নিন।‘

- Advertisement -

পরবর্তীতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় তথ্য সংস্কৃতি ও পর্যটনমন্ত্রী প্রহ্লাদ সিংহ প্যাটেল। তিনি তাঁর বক্তব্যের সূচনাতে উপস্থিত বিজেপিকর্মী সমর্থকদের প্রধানমন্ত্রী জনসভায় যোগদান করার আহ্বান জানান এবং নির্বিঘ্নে ভোট দান করার আবেদন জানান। তিনি কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আগামী ২রা মে এই রাজ্যে বিজেপি সরকার গঠন করতে চলেছে এবং সেদিনই তৃণমূল সরকারের চিরবিদায় ঘটবে।‘ তিনি আরও জানান, বাংলার জনতা ইতিমধ্যে নির্ণয় করে নিয়েছেন তারা বিজেপিকে ভোট দেবেন। এই মুহূর্তে আর এসব অজুহাত খুঁজে লাভ নেই। ২ মে’র পর তৃণমূলকে বনবাস দেবে বাংলার জনতা। তাই যতদিন যাচ্ছে তৃণমূলের ক্রমশ উদ্বেগ বাড়ছে।