প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নামাঙ্কিত মিউজিয়াম জঙ্গিপুরে

143

জঙ্গিপুর: প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ব্যবহৃত সামগ্রীকে একত্রিত করে জনসমক্ষে আনার উদ্যোগ নিলেন প্রণবপুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে নিজস্ব বাসভবনের একতলায় তৈরি হতে চলেছে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নামাঙ্কিত মিউজিয়াম। মঙ্গলবার তাঁর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে উদ্বোধন হয় এই মিউজিয়ামের। প্রণববাবুর ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্র, যেমন তাঁর ব্যক্তিগত গাড়ি থেকে শুরু করে পোশাক, বইপত্র, সোফা, চেয়ার শোভা পাবে এই মিউজিয়ামে। পাশাপাশি প্রণববাবুর বিভিন্ন দলিল-দস্তাবেজও থাকবে এখানে। এমনকি, বাদ পড়বে না তাঁর শখের ঘড়িটিও।

ইতিমধ্যেই দিল্লি থেকে জঙ্গিপুর ভবনে তাঁর ব্যবহৃত জিনিস ও বইপত্র এসে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন প্রণবপুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘জঙ্গিপুর ছিল বাবার দ্বিতীয় বাড়ি। এই জঙ্গিপুর থেকে জিতেই বাবা প্রথমবার লোকসভায় গিয়েছিলেন। তাই এখানকার মানুষের প্রতি বাবার অন্যরকম একটা ভালোবাসা ছিল। সময় পেলেই তিনি এখানে ছুটে আসতেন। জঙ্গিপুরের প্রতি তিনি ছিলেন একান্ত আবেগপ্রবণ। তাই তাঁর আবেগ অনুভূতিকে সম্মান জানাতে জঙ্গিপুর ভবনের একতলাকে মিউজিয়াম করে সাজিয়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দিল্লির রাষ্ট্রপতিভবন থেকে তাঁর বইগুলি যতগুলি সম্ভব সংগ্রহ করে এখানে এনে সাজিয়ে রাখার ব্যবস্থা করছি।’

- Advertisement -

অভিজিৎবাবু আরও বলেন, ‘একেবারেই ঘরোয়াভাবে মিউজিয়ামটি সাজিয়ে তোলা হবে। তিনি যেখানে যেরকমভাবে বসতেন, সেখানে সেই রকমভাবে আসবাবপত্র এবং তাঁর ব্যবহৃত জিনিসগুলি রাখা হবে। এর জন্য একজন জাদুঘর বিশেষজ্ঞের খোঁজ চালানো হচ্ছে। বিশেষজ্ঞের সন্ধান পেলে আশা করি খুব শীঘ্রই সঠিকভাবে মিউজিয়ামে জিনিসগুলি রাখার কাজ শুরু করে দিতে পারব।’

২০২০ সালের ৩১ অগাস্ট প্রয়াত হন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। লোকসভার সাংসদ থেকে তাঁর রাষ্ট্রপতি পদে উত্তরণ, সবটাই এই জঙ্গিপুরের হাত ধরে। তাই জঙ্গিপুরকে কখনওই ভোলেননি প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। রাষ্ট্রপতি হওয়ার পরেও জঙ্গিপুরে এসে থেকেছেন প্রণববাবু। আজ তিনি না থাকলেও, জঙ্গিপুরের সোনাটিকুরিতে ‘জঙ্গিপুর ভবন’ তথা ‘প্রণব মুখোপাধ্যায় মিউজিয়াম’-এর মাধ্যমে সকলের মনে বেঁচে থাকবেন বলে আশা জঙ্গিপুরবাসীর।