খুদে পড়ুয়াদের পুজো ঘিরে জোর প্রস্তুতি

159

তুফানগঞ্জ: বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গা পুজো। তিন বছর আগে পাড়ার মধ্যে দুর্গা পুজোর সূচনা করেছিল একদল শিশু। তুফানগঞ্জ শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বিধানপল্লী এলাকার তুত ফার্ম রোডের খুদেদের দুর্গা পুজো এবছর তিন বছরে পা রাখল। খুদে পড়ুয়ারা এবছর মাটির মৃন্ময়ী মূর্তি ও চাঁদা তোলার কাজে এখন ব্যস্ত।

স্থানীয় বাসিন্দা টিঙ্কুরানি রায় কার্জি জানান, আমার বাড়ির পাশে পুজো হবে একটি খোলা জায়গায়। আমার ১২ বছরের ছেলে জ্যোতির্ময় কার্জির খুব ইচ্ছে ছিল পুজো করার। সে বাড়ির একটি ঘরের পাশে দুর্গা পুজোর সূচনা করেছিল। গত বছর সে থার্মোকল দিয়ে দুর্গা প্রতিমা বানিয়েছিল। এবছর সে মাটির মূর্তি বানাচ্ছে। এখনও রং করার কাজ বাকি রয়েছে। তবে দু’এক দিনের মধ্যে রং করার কাজ শেষ হয়ে যাবে। আগে পুজো ছোটো হলেও এবছর পুজো বড় হবে। এখন জ্যোতির্ময়ের দেখাদেখি পাড়ার কচিকাচারাও দুর্গা পুজোর আয়োজনে শামিল হয়েছে। পাড়ার বাসিন্দাদের কাছ থেকে চাঁদা তুলে খুদেরা পুজো করে।

- Advertisement -

সুস্মিতা কর্মকার বলেন, ‘বাড়ির পাশে দুর্গা পুজো। এই পুজোতে পুজো আনন্দ করতে আমরা সবাই শামিল হয়েছি।’ জ্যোতিময় কার্যী বলেন, ‘আমাদের পুজোর মূর্তির উচ্চতা প্রায় ৬ ফুট। মূর্তি আমরাই তৈরি করছি। আমাদের পুজোর বাজেট প্রায় এক লক্ষ টাকা। বাড়ির আশেপাশের লোকজন ও চাঁদা তুলে পুজো করা হয় নিষ্ঠা সহকারে। পাড়ার সকলেই আমাদের আর্থিক সহযোগিতা করেন। আমাদের পুজোর উদ্বোধন করবেন তুফানগঞ্জ পুরসভার প্রাক্তন প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান কৃষ্ণা ইশোর।’