নিজের বাসভবনেই খুন প্রেসিডেন্ট, গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে স্ত্রী

259

পোর্টাল ডেস্ক : হাইতির প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইসকে নিজের ব্যক্তিগত বাসভবনে হত্যা করা হয়েছে। দেশের অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী বুধবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, হাইতিয়ান প্রেসিডেন্ট জোভেনেল মোইসের ব্যক্তিগত বাসভবনে আততায়ীরা ঢুকে তাকে হত্যা করে ।

মঙ্গলবার গভীর রাতে হামলার পরে মোইসের স্ত্রী তথা ফার্স্ট লেডি মার্টিন মোইস হাসপাতালে ভর্তি আছেন বলে জানা গিয়েছে।  এই ঘটনাকে ‘‌ঘৃণ্য, অমানবিক ও বর্বর আচরণ’‌ বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই এবং হাইতির জাতীয় পুলিশ ও অন্যান্য কর্তৃপক্ষ ক্যারিবিয়ান দেশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রেখেছে বলেও জানা গিয়েছে।

- Advertisement -

হাইতি পশ্চিম ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জের স্বাধীন দ্বীপরাষ্ট্র। এর সরকারি নাম হাইতি প্রজাতন্ত্র। ক্যারিবিয় সাগরের হিস্পানিওলা দ্বীপের পশ্চিম এক-তৃতীয়াংশ এলাকা নিয়ে রাষ্ট্রটি গঠিত। দ্বীপের বাকি অংশে ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র অবস্থিত। ১৮০৪ সালে হাইতি লাতিন আমেরিকার প্রথম স্বাধীন দেশ হিসেবে আবির্ভূত হয়। এটিই দাসদের সফল বিপ্লবের ফলে সৃষ্ট একমাত্র রাষ্ট্র। হাইতি প্রথমে স্পেনীয় ও পরে ফরাসি উপনিবেশ ছিল। হাইতির সংখ্যাগরিষ্ঠ আফ্রিকান দাসেরা ফরাসি ঔপনিবেশিকদের উৎখাত করলে হাইতি স্বাধীনতা লাভ করে। পর্তোপ্রাস দেশটির রাজধানী ও বৃহত্তম শহর।

হাইতির রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার ইতিহাস দীর্ঘ। দেশটিতে অনেকগুলো স্বৈরাচারী  শাসন করেছেন। এদের মধ্যে ফ্রঁসোয়া দুভালিয়ের নাম উল্লেখযোগ্য। একবিংশ শতকের প্রারম্ভে এসে হাইতি একটি গ্রহণযোগ্য সরকার প্রতিষ্ঠা এবং জনগণের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবস্থা উন্নয়নের চেষ্টা করছে।