৩ হাজার টাকা ভাতার দাবিতে পথ অবরোধ পুরোহিতদের

998

রায়গঞ্জ: ‘এক হাজার টাকা নয়, তিন হাজার টাকা ভাতা দিতে হবে’, এই দাবিতে রায়গঞ্জের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ প্রদর্শন ও পথ অবরোধ করলেন বিপ্রসমাজ কল্যাণ সমিতির সদস্যরা। শনিবার রায়গঞ্জের পুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তারা। প্রায় আধ ঘন্টা অবরোধ চলে তাঁদের।পুরোহিতদের অবরোধে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। বেলা দেড়টা নাগাদ তাঁরা অবরোধ তুলে নেন। বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী, বিপ্রসমাজ কল্যাণ সমিতির জেলা সম্পাদক বরুণ ভট্টাচার্য, নিমাই কবিরাজ সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিপ্রসমাজ কল্যাণ সমিতির দাবি, রাজ্য সরকার পুরোহিতদের যে এক হাজার টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে, তা এক প্রকার ভিক্ষার মত। ইমাম ভাতা হিসেবে যদি রাজ্য সরকার মুসলিমদের আড়াই হাজার দিতে পারে, তবে পুরোহিতদের কেন তিন হাজার টাকা দিতে পারবে না। বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী সহ অন্যান্যরা রাস্তার মাঝে বসে পড়েন। বিশ্বজিৎবাবু বলেন, পুরোহিতদের এক হাজার টাকা ভাতা একপ্রকার ললিপপ দেওয়ার মত। এটা আমরা মানব না। পুরোহিতদের অবিলম্বে তিন হাজার টাকা ভাতা দিতে হবে। এছাড়া পুরোহিতের ছেলেমেয়েদের পড়াশুনোর জন্য সংস্কৃত স্কুল ও কলেজ তৈরি করতে হবে।

- Advertisement -

বিপ্রসমাজ কল্যাণ সমিতির জেলা সম্পাদক বরুণ ভট্টাচার্য বলেন, বিপ্রসমাজের আন্দোলনের জেরে সরকার ভাতা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে। তবে এক হাজার টাকা দিলে চলবে না। পুরোহিতদের তিন হাজার টাকা দিয়ে প্রাপ্য সম্মান দিতে হবে এবং সেই সঙ্গে আবাসনের ব্যবস্থা করতে হবে। এদিন তিনি পুরোহিতদের তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনে যোগ দেওয়ানোর ব্যাপারে কটাক্ষ করেন। তাঁর কটাক্ষ, পুরোহিতরা শ্রমিক কবে থেকে হল! পুরোহিতদের তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনে যোগ দেওয়ার ব্যবস্থা করে তৃণমূল পুরোহিতদের একপ্রকার অপমান করা হয়েছে বলে দাবি তাঁর।

পুরোহিত কল্যাণ পরিষদের সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় চট্রোপাধ্যায় বলেন, আমাদের সংগঠন অরাজনৈতিক। এতদিন পর রাজ্য সরকার পুরোহিতদের কথা ভেবে এক হাজার টাকা ভাতা ও আবাসের ব্যবস্থা করায় আমরা খুশি। তবে আমাদের দাবি তিন হাজার টাকা ভাতা দিতে হবে। তবে এদিন বরুণবাবু দাবি করেন, তাদের সংগঠনও অরাজনৈতিক। যে কোনও দল করতে পারে পুরোহিতেরা। তবে সংগঠনের নিয়ম মেনে চলতে হবে। রাজ্য সরকার যদি পুরোহিতদের তিন হাজার টাকা ভাতা দেওয়ার ব্যবস্থা না করে, তবে বিপ্রসমাজ পরবর্তীতে বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে বলে হুমকি দেন বরুণবাবু।