প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ মামলায় হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ পর্ষদ

107

কলকাতা: ১৬,৫০০ শূন্যপদে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ওপর গত ২২ ফেব্রুয়ারি স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজ। সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে আপিল করল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। বিচারপতি সৌমেন সেন ও বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে আপিলের মামালাটি দায়ের হয়েছে।  পাশাপাশি যে সমস্ত প্রার্থীরা ইতিমধ্যেই চাকরি পেয়েছেন তারাও বুধবার ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়েছেন সিঙ্গল বেঞ্চের এই নির্দেশের বিরুদ্ধে।

১৬ ফেব্রুয়ারি ১৬,৫০০ পদে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের মেধাতালিকা প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তার আগে গত ২৩ ডিসেম্বর এই শূন্যপদগুলির জন্য প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করে পর্ষদ। মূলত টেট উত্তীর্ণ এবং যাঁদের প্রশিক্ষণ রয়েছে তাঁরাই এই পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন বলে পর্ষদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায়। জানুয়ারি মাসে সাতদিন ধরে এই শূন্যপদ পূরণের জন্য সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। কিন্তু নিয়োগের একেবারে শেষ পর্যায়ে এসে বেশকয়েকজন প্রার্থী হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। জানা গিয়েছে, কোনও মেধা তালিকা প্রকাশ না করেই নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। সরস্বতী পুজার ছুটির দিনে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ সাতটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে নিয়োগ কর্তারা নিয়োগের কয়েকটি ধাপ শেষ করে ফেলেন বলে অভিযোগ করা হয়। এরপরই বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজ ওই নিয়োগ প্রক্রিয়ার ওপর স্থগিতাদেশ দেন।

- Advertisement -