‘পুলওয়ামার শহিদদের নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন যাঁরা, তাঁদের ভুলবে না দেশবাসী’: মোদি

259

গান্ধিনগর: চিন ভারতের সংঘাত যেন কমেও কমছে না। আর এরইমধ্যে ২০১৯-এর ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার কথা স্বীকার করে নেন ইমরান খানের মন্ত্রীসভার এক মন্ত্রী। এরপরই গুজরাতের কেভাডিয়ায় এক কর্মসূচিতে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিরোধীদের আক্রমণ করতে গিয়ে বলেন, পুলওয়ামা হামলায় শহিদ জওয়ানদের আত্মত্যাগ নিয়ে যাঁরা প্রশ্ন তুলেছিলেন, সম্প্রতি তাঁদের মুখোশ খুলে দিয়েছে পাকিস্তানের এক মন্ত্রীর স্বীকারোক্তি৷ সর্দার বল্লভভাই পটেলের জন্মদিন পালন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর যেভাবে বিরোধীরা অপমানজনক মন্তব্য করেছিল এবং সংশয় প্রকাশ করেছিল, তা কোনওদিন ভুলবে না দেশবাসী৷

কিছু দিন আগে পুলওয়ামা হামলা যে পাকিস্তানের বড় সাফল্য বলে তা দাবি করেন খোদ ইমরান খানের এক মন্ত্রী। বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের সংসদে দাঁড়িয়ে স্বীকার করে নেন ইমরান সরকারের মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী৷ এরপরই বিজেপি-র তরফ থেকে দাবি করা হয়, পুলওয়ামা হামলায় ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলার জন্য কংগ্রেসের ক্ষমা চাওয়া উচিত৷

- Advertisement -

কার্যত সেই সুরেই সুর মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, ‘প্রতিবেশী দেশে পুলওয়ামায় হামলা নিয়ে স্বীকারোক্তি সেই সমস্ত মানুষের মুখোশ খুলে দিয়েছে যাঁরা এই ঘটনায় শহিদদের আত্মত্যাগ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন৷ আমি এই সমস্ত আক্রমণ সহ্য করেছিলাম কিন্তু শহিদ সেনাদের জন্য আমার মনে গভীর ক্ষত ছিল৷ আমি এই সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলিকে অনুরোধ করব, দেশের সুরক্ষা, নিরাপত্তাবাহিনীর মনোবলের কথা ভেবে দয়া করে এই ধরনের রাজনীতি করবেন না৷’

এদিনের বক্তব্যে ফ্রান্সের নিসে জঙ্গি হামলার প্রসঙ্গও তোলেন প্রধানমন্ত্রী৷ এই ঘটনা নিয়ে ইসলামপন্থী দেশগুলির সঙ্গে ফ্রান্সের বাকযুদ্ধ শুরু হয়েছে৷ এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সব দেশের সরকার এবং সব ধর্মকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে৷ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শান্তি, সৌভ্রাতৃত্ব এবং পারস্পরিক শ্রদ্ধাই প্রকৃত মানবিকতার পরিচয়৷ সন্ত্রাসবাদ কখনও কারও ভাল করতে পারে না৷’

এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের বৈচিত্রই আমাদের অস্তিত্বের মূল শক্তি৷ এই কারণেই আমরা অন্যদের থেকে এতখানি আলাদা৷ আমাদের মনে রাখতে হবে এই একতাই আমাদের শক্তি৷ যা সবসময় অন্যদের মাথায় ঘুরতে থাকে৷ তারা সবসময় এই বৈচিত্রকেই আমাদের দুর্বলতায় পরিণত করার চেষ্টা করছে৷ এই শক্তিগুলিকে চিনে নেওয়া দরকার৷’