বঞ্চনার জবাব দিয়ে খুশি বাতিল প্রিয়ন্ত

কলকাতা : মরশুমের শুরুতেও নিশ্চিত ছিলেন মহমেডান স্পোর্টিংয়ে থাকছেন। কিন্তু হঠাৎ জানতে পারেন, এবার তাঁকে রাখা হচ্ছে না। উপায় না পেয়ে দ্রুত বিএসএসের জার্সি গায়ে চাপান। সোমবার কলকাতা লিগে সেই মহমেডানকেই হারিয়ে ও ম্যাচের সেরা হয়ে তৃপ্ত ময়দানের অভিজ্ঞ গোলরক্ষক প্রিয়ন্ত সিং।

একাধিকবার মহমেডানের জার্সি গায়ে দিয়েছেন প্রিয়ন্ত। গত বছর আইলিগেও তিনিই ছিলেন তিনকাঠির নীচে। তবে এবার দলে না রাখায় কিছুটা অভিমানী তিনি। বললেন, মহমেডান এবার চারজন গোলরক্ষক নিয়েছে, সবাই নতুন। এমন নয় যে তাঁরা আমার থেকে অনেকটাই ভালো, আইএসএল খেলে এসেছে। আমাকে কেন দলে রাখা হল না জানি না। এদিন নিজের পারফরমেন্স প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, হারলে আমরা সরাসরি পরের পর্বে যেতে পারতাম না। তাই আজ ঠিক করেই নেমেছিলাম যে গোল খাব না। তিন পয়েন্ট দরকার ছিল। সেটা পাওয়ায় আমি খুশি। বিএসএস কর্তা ও সমর্থকদের কাছে সম্মান পেয়ে খুশি দলের অধিনায়ক প্রিয়ন্ত।

- Advertisement -

গোটা ম্যাচে একের পর এক গোল বাঁচিয়েছেন প্রিয়ন্ত। খেলা শেষ হওয়ার মিনিট দুয়েক আগে দীপক রজক গোল করতেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন তিনি। মহমেডানের আরেক বাতিল তীর্থঙ্কর সরকারও দলের জয়ে বড় ভূমিকা নিয়েছেন। তাঁর নেওয়া ফ্রিকিক কোনওভাবে আটকান মহমেডানের গোলরক্ষক মিঠুন সামন্ত। ফিরতি বল গোলে পাঠান দীপক। বদলার ম্যাচ প্রসঙ্গে প্রিয়ন্ত বললেন, আমরা জবাব দেওয়ার জন্যই বিএসএস-এ সই করি। বোঝাতে চেয়েছিলাম, আমরা কোনও অংশে কম নই। সেটা করতে পেরে ভালো লাগছে। জানুয়ারির ট্রান্সফার উইন্ডো কাজে লাগিয়ে আইলিগে যোগ দেওয়াই লক্ষ্য প্রিয়ন্তের। সেজন্য লিগের বাকি ম্যাচে ভালো পারফরমেন্স করতে চাইছেন।