সচিব-সভাপতি টানাপোড়েন আইএফএ-তে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : আইএফএ-তে হঠাৎ অচলাবস্থা। যার জেরে থমকে রয়েছে সামনের মরশুমের পরিকল্পনা।

গত মাসে আই লিগ শেষের পর থেকে আইএফএ অফিসে আসা বন্ধ করে দিয়েছেন সচিব জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। আসছেন না সহসচিব, কোশাধ্যক্ষ সহ সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কিন্তু কেন? কারণ অনুসন্ধানে উঠে আসছে কয়েক মাস আগের ঘটনা। যার কেন্দ্রে কন্যাশ্রী কাপে ইস্টবেঙ্গলের এক বাইরের রাজ্যের ফুটবলার খেলানো নিয়ে বিতর্ক। যা নিয়ে মনোমালিন্য তৈরি হয় আইএফএ সচিব ও সভাপতির মধ্যে। এমনকি আই লিগ শেষ হলে পদত্যাগের কথাও ঘোষণা করেন ক্ষুব্ধ জয়দীপ। সূত্রের খবর, মার্চের শেষে আই লিগে দাঁড়ি পড়তেই তাই আইএফএ অফিসে আসা বন্ধ করেছেন সচিব।

- Advertisement -

পরিস্থিতি যা তাতে এখন অচলাবস্থা কাটাতে আইএফএ সভাপতি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্যোগী না হলে সমস্যা আরও জটিল হবে। সচিব পদে জয়দীপ মুখোপাধ্যায়কে ফেরাতে গেলে তাঁকে ইস্তাফাপত্র ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করতে হবে আইএফএ সভাপতি কিংবা সংস্থার গর্ভনিং বডির সদস্যদের।

তবে বরফ গলার ইঙ্গিত নেই সভাপতির তরফে। বরং গোটা ঘটনায় যেভাবে তাঁকে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছিল তা নিয়ে যথেষ্ট অভিমান রয়েছে অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এই প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, আমি তো কোনও গণ্ডগোল করিনি। ফলে সচিবকে পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করার জায়গায় আমি নেই। তবে ও যদি পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নেয় তাহলে আমি নিশ্চয় সেটা গ্রহণ করব। পাশাপাশি দ্রুত এই সমস্যার সমাধান ঘটবে, এমনটাও জানিয়েছেন তিনি। আসলে সভাপতি নিজেও যেহেতু এখন বিশেষ আইএফএমুখো হচ্ছেন না, তাই সচিব পদে জয়দীপের কাজ চালিয়ে যেতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।

তবে পরিস্থিতি যাই হোক, আইএফএ-র এই অভ্যন্তরীণ সমস্যার প্রভাব কোনওভাবেই সামনের মরশুমে পরিকল্পনাকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে না, সেব্যাপারে আশ্বস্ত করেছেন পদত্যাগী সচিব জয়দীপ। ফোনে তিনি বলেন, আমার জন্য আইএফএ-র কোনও কাজ থমকে থাকবে না। এটা কোনও ব্যক্তিগত সংস্থা নয়। রাজ্যে নির্বাচন পর্ব মিটলে নতুন উদ্যোগে তাঁরা আগামী মরশুম নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়বেন বলে জানিয়েছেন জয়দীপ।