সেতু তৈরির প্রতিশ্রুতি, বাস্তবায়নে সংশয় বাসিন্দাদের

95

ফালাকাটা: ভোটের পর তৈরি হবে সেতু। এই আশায় বুক বেঁধেছিলেন আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটা ব্লকের দেওগাঁওয়ের কয়েক হাজার মানুষ। কিন্তু ফালাকাটা আসনে বিজেপি জেতায় রাজ্যের শাসক দলের ওই প্রতিশ্রুতি এখন কতটা কার্যকারী হবে তা নিয়ে সংশয়ে এলাকার বাসিন্দারা।

সেতু তৈরির প্রতিশ্রুতি, বাস্তবায়নে সংশয় বাসিন্দাদের| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
দেওগাঁওয়ের সঙ্গে জটেশ্বরের দু’টি গ্রামপঞ্চায়েত ও মাদারিহাটের রাঙ্গালিবাজনা গ্রাম পঞ্চায়েতকে আড়াআড়িভাবে ভাগ করেছে উত্তরে দক্ষিণে প্রবাহিত মুজনাই নদী। আজও নদী পারাপারে ভরসা বাঁশের সাঁকো। বর্ষাকালে ভরসা নৌকা। এগুলির মধ্যে বঙ্কিমের ঘাটেই একমাত্র রয়েছে সেতু। লকিয়তউল্লাহ ঘাটেও সেতু ছিল, তবে ১৯৯৩ সালের বন্যায় সেটিও ভেসে যায়। এলাকাবাসীর দাবিতে বছর দেড়েক আগে লকিয়তউল্লাহ ঘাটের সেতু তৈরির ব্যাপারে আশ্বাস দেন তৎকালীন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। ভোটের চার পাঁচ মাস আগে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতর থেকে সেতু তৈরির প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। কিন্তু তারপরই এসে যায় ভোট। বন্ধ হয়ে যায় সব তোড়জোড়।

- Advertisement -

সেতু তৈরির প্রতিশ্রুতি, বাস্তবায়নে সংশয় বাসিন্দাদের| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India
তৃণমূলের ফালাকাটা ব্লকের সভাপতি সুভাষ রায়ও জানান, বিধায়ক বিজেপির বলে আমরা উন্নয়নের বিরোধীতা করব এটা তো হয় না। সেতু তৈরির জন্য দলের তরফে সরকারের কাছে আবেদন জানানো হবে। সহযোগিতাও করা হবে। তবে ফালাকাটায় আমরা জিতলে উন্নয়ন আরও ত্বরান্বিত হত। অন্যদিকে এই বিষয়ে ফালাকাটার বিজেপি বিধায়ক দীপক বর্মন জানান, উন্নয়ন করা সরকারের কাজ। বিধায়ক সরকারের একটি অংশ মাত্র। বিধায়কের কাজ হল কোথায় উন্নয়ন করা প্রয়োজন সে ব্যাপারে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করা। বিধায়ক চাইলেই কাজ হবে, এমনটাও নয়। তবে এলাকার মানুষকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি রক্ষার আপ্রাণ চেষ্টা করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।