কৃষকের ধান পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ, প্রতিবাদে বিডিও অফিসে ধর্নায় বিজেপি

348

হেমতাবাদ: একদিকে কৃষি আইনের প্রতিবাদে যখন দেশজুড়ে বনধ চলছে, ঠিক আগের দিন রাতে কৃষকের ধানের গোলা পুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়াল হেমতাবাদে। খবর পেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের বাড়িতে পৌঁছান বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা। দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার ও ক্ষতিপূরণের দাবিতে বিডিও অফিসে ধর্নায় বসেন তাঁরা।

হেমতাবাদ ব্লকের সোনাবন্ধ গ্রামের প্রান্তিক কৃষক যার্থু মহম্মদ। তিনি দেড় বিঘা জমির ধান কেটে বাড়িতে জমিয়ে রেখেছিলেন। সোমবার গভীর রাতে দুষ্কৃতীরা বাড়িতে ঢুকে ধানের গোলায় আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। আগুনের লেলিহান শিখায় ঘুম ভেঙে যায় যার্থু মহম্মদের। তাঁর চিৎকারে এলাকাবাসী সেখানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও ততক্ষণে আগুনে গোলার ধান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এদিকে জমির ধান পুড়ে যাওয়ায় বিপুল ক্ষতির মুখে পড়েছেন যার্থুবাবু।

- Advertisement -

বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, কৃষকদের স্বার্থে এদিন যখন বামপন্থীরা বনধ করছে সেই সময় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক যার্থুবাবুর বাড়িতে কাউকে দেখা যায়নি। অথচ কৃষকদের জন্য মিটিং-মিছিল করছেন তাঁরা। দুষ্কৃতীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার এবং ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের ক্ষতিপূরণের দাবিতে এদিন বিডিও অফিসের সামনে ধর্নায় বসেন তাঁরা। বিজেপি নেতা দেবব্রত সাহা জানান, হেমতাবাদে প্রায়ই এমন ঘটনা ঘটছে। কয়েকদিন আগে এক কৃষকের ধান পুড়িয়ে দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। গতকাল ফের এমন ঘটনা ঘটেছে। যার্থুবাবুর ক্ষতিপূরণের দাবিতেই এই আন্দোলন বলে জানিয়েছেন তিনি। এদিন বিজেপির তরফে বিডিওকে স্মারকলিপি দেওয়ার পাশাপাশি বিডিও অফিস থেকে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের হাতে বিভিন্ন সামগ্রী তুলে দেওয়া হলে এবং দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে আশ্বস্ত করা হলে বিজেপির তরফে বিক্ষোভ তুলে নেওয়া হয়।