চালসা, ১৪ ফেব্রুয়ারিঃ ডুয়ার্সের মূর্তি, কুর্তি ও নেওড়া নদীতে বালি-বজরি ও গিটি উত্তোলনের জন্য সরকারি রয়েলটি প্রদানের দাবিতে আন্দোলন শুরু করল ট্রাক্টর চালক ও মালিকরা। এনিয়ে সংগঠনের তরফে বিভিন্ন প্রশাসনিক দফতরে স্মারকলিপিও দেওয়া হয়েছে। দাবি পূরণ না হলে বৃহস্পতিবার থেকে সমস্ত পণ্য়বাহী যান বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছেন তারা। জানা গিয়েছে, শুধু মাল নদীতে রয়ালটি চালু রয়েছে। এদিকে ট্রাক্টর বন্ধ থাকার ফলে মালিক, চালক সহ প্রায় ৩০০-৪০০ টি পরিবার রোজগারহীন হয়ে পড়েছে। অনেক বেকার যুবক ঋণ নিয়ে ট্রাক্টর কিনেছিলেন। ব্যবসা বন্ধ থাকার জন্য তাঁরা গাড়ির কিস্তি দিতে পারছেন না। বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি নির্মাণের কাজও বন্ধ হয়ে রয়েছে। সংগঠনের সম্পাদক নুরজামাল হোসেন বলেন, ‘ওই তিন নদীতে রয়ালটি প্রদান সহ ট্রাক্টর যাতে অবাধে চলাচল করতে পারে তার জন্য আইনি বিধান শিথিল করা এবং মাটিয়ালি ব্লক ট্রাক্টর ওনার্স এসোসিয়েশনকে মান্যতা দেওয়ার বিষয়ে প্রশাসনের কাছে দাবি জানানো হয়েছে। মালবাজারের এসডিপিও দেবাশিষ চক্রবর্তী বলেন, ‘দাবিপত্র পেয়েছি। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মহলে জানানো হয়েছে।’