সাইকেল চালিয়ে পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ

146

দিনহাটা: বিধানসভা ভোটের আগে একদিকে বাঙালি আবেগ অন্যদিকে মূল্যবৃদ্ধির মত গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুকে সামনে রেখে মাঠে নামল দিনহাটা শহর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস। আর তারই প্রাথমিক সূচনা হল বুধবার। এদিন পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে দিনহাটা শহর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্যরা ধূতি-পাঞ্জাবী পড়ে দিনহাটার রাজপথে সাইকেল চালিয়ে অভিনব প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে। দিনহাটা কলেজপাড়া থেকে সাইকেল নিয়ে এই র‍্যালি শুরু হয়, যা বাইপাস হয়ে দিনহাটা পাঁচমাথায় এসে থামে।

এদিন প্রত্যেকের গায়ে ঝোলানো ছিল মুখ্যমন্ত্রী ও দিনহাটা বিধায়কের ছবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ড। আর সেই প্ল্যাকার্ডের কোথাও কেন্দ্র সরকারের কাছে পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে, তো কোথাও আবার বুলেট কারের বদলে তৃতীয়বারে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বাংলার মেয়েকে চাই বলে লেখাও রয়েছে। এদিনের সাইকেল মিছিলের নেতৃত্ব দেন দিনহাটা শহর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়দীপ ঘোষ, মৌমিতা ভট্টাচার্য সহ অন্যান্যরা।

- Advertisement -

জয়দীপবাবু জানান, বর্তমান কেন্দ্র সরকার পেট্রোপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে নীরব। পাশাপাশি তিনি বর্তমান কেন্দ্র সরকারকে বোবা কালা টসার সরকার বলেও কটাক্ষ করতে ছারেননি। জয়দীপবাবু বলেন, ‘যেভাবে পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দাম বাড়ছে তাতে সাধারণ মানুষ দিশেহারা অবস্থা। আর দেশের হাল ফেরাতে হলে মমতার মতো নেত্রীর প্রয়োজন রয়েছে দেশে, আর সেকারণেই এবারের বিধানসভা ভোটে যাতে সারা রাজ্যের পাশাপাশি দিনহাটাবাসীও মমতাকে বেছে নেন তাঁর আবেদন করেন শহরবাসীর কাছে। সেইসঙ্গে দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহের বিরোধীদেরও তিনি একহাত নেন।’

তিনি জানান, আখের যারা বিধায়কের বিধায়কের বিরোধিতা করা মিটিং মিছিল করছেন তাঁরা আসলে দলেরই ক্ষতি করছেন। পাঁচমাথা মোড় থেকে সাইকেল র‍্যালি পুনরায় শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ঘুরে বেড়ায় এদিন। তবে এদিন তৃণমূলের সাইকেল র‍্যালিকে পাওা দিতে চাননি দিনহাটার বিজেপি নেতৃত্বরা। বিজেপির জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার জানান সাধারণ মানুষকে এধরণের কর্মসূচি দিয়ে ভোলানো যাবে না। আর তাঁর জবাব খুব শীঘ্রই ভোটের ফলাফলে তাঁরা পেয়ে যাবে।