রামেশ্বর মুর্মুর হত্যাকাণ্ড ও মূর্তি ভাঙ্গার প্রতিবাদে অবস্থান-বিক্ষোভ

255

গাজোল: ঝাড়খন্ডে বীর শহিদ সিধু মুর্মুর বংশধর রামেশ্বর মুর্মুর হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে এবং পুরুলিয়ার মানবাজারে সিধু-কানুর মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে সোমবার মিছিল এবং অবস্থান-বিক্ষোভ পালন করল ঝাড়খন্ড দিশম পার্টি এবং আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযানের নেতাকর্মীরা।

এদিন দুই সংগঠনের পক্ষ থেকে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়। এছাড়াও গাজোল বিদ্রোহী মোড়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে চলে অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি। এদিনের কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন জেডিপির রাজ্য কমিটির সহ-সভাপতি মোহন হাঁসদা, আদিবাসী সিঙ্গেল অভিযানের জেলা কমিটির সভাপতি বিনয় বেসরা সহ অন্যান্যরা।

- Advertisement -

মোহনবাবু বলেন, সাঁওতাল বিদ্রোহের অন্যতম শহীদ সিধু মুর্মুর বংশধর রামেশ্বর মুর্মুকে গত ১২ জুন নৃশংস ভাবে খুন করা হয়। সেই হত্যাকাণ্ডের কিনারা এখনও হয়নি। রাজ্যে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা সরকার এবং কেন্দ্রে মোদি সরকার দুজনেই এই বিষয়ে চুপ। আমরা এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচনে সিবিআই তদন্তের দাবি নিয়ে লড়াই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। দাবি সিবিআই তদন্তের মাধ্যমে উন্মোচিত হোক এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য।

তিনি আরও বলেন, সংগঠনের পক্ষ থেকে সাঁওতাল বিদ্রোহের অন্যতম নায়ক সিধু-কানু-বিরসা-জিতুদের বংশধরদের সুরক্ষার জন্য একটি তহবিল গঠনের দাবি জানিয়েছি। এছাড়াও গত ৩০ জুন হুল দিবস এর দিন সাঁওতাল বিদ্রোহের অন্যতম নেতা সিধু এবং কানুর যে মূর্তি ছিল পুরুলিয়ার মান বাজারে তা ভেঙে ফেলা হয়েছে। মূর্তি ভাঙার বিরুদ্ধে আমরা তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে মূর্তি ভাঙা কান্ডের সঙ্গে যারা যুক্ত রয়েছে তাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে ওই সংগঠন।