ক্ষতিপূরণের দাবিতে জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ

100

চাঁচল: ক্ষতিপূরণের দাবিতে সোমবার চাঁচল-হরিশ্চন্দ্রপুর ৮১ নম্বর জাতীয় সড়কের রানিকামাতে পিডব্লিউডির আধিকারিককে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন শতাধিক জমিদাতা। তাঁদের অভিযোগ, ৮১ নম্বর জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের জন্য কৃষকদের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছিল। কিন্তু যা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে, তা একেবারেই সামান্য। ক্ষতিপূরণ না পেলে জমি ছাড়বেন না বলে হুঁশিয়ারি দেন আন্দোলনকারীরা। যদিও পরে পিডব্লিউডি (৮১ নম্বর জাতীয় সড়ক)-এর অ‍্যাসিট‍্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার তিমিরবরণ সাহার আশ্বাসে বিক্ষোভ তুলে নেন তাঁরা।

আন্দোলনকারী কৃষক জুমারত আলির অভিযোগ, ৮১ নম্বর জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের জন‍্য হাতিন্দা, খেলেনপুর ও কনুয়া-এই তিনটি মৌজার কয়েকশো বিঘা ফসলের জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছিল। কিন্তু কৃষকরা উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ পাননি। তাই বাধ্য হয়ে এদিন আন্দোলনে নামেন এলাকার শতাধিক কৃষক। দুপুর সাড়ে বারোটা থেকে দেড়টা পর্যন্ত প্রায় এক ঘণ্টা বিক্ষোভ চলে।

- Advertisement -

আন্দোলনকারী জমিদাতা হুসেন আলি, রাজু দত্ত প্রমুখ জানান, জমি নেওয়ার সময় বলা হয়েছিল বাজার মূল্যের চারগুণ দাম দেওয়া হবে। কিন্তু জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ তা করেননি। জমির ন‍্যায‍্য মূল‍্য থেকে বঞ্চিত তারা। তাঁদের অভিযোগ, আশ্বাস মিললেও ন‍্যায‍্য ক্ষতিপূরণ মিলছে না। জমিদাতাদের দাবি, উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ না দিয়েই কাজ শুরু করে দিয়েছে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ।

এবিষয়ে পিডব্লিউডির (৮১ নম্বর জাতীয় সড়ক) অ‍্যাসিট‍্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার তিমিরবরণ সাহা জানিয়েছেন, হাতিন্দা, কনুয়া ও খেলেনপুর মৌজার জমি দাতারা ন্যায্য ক্ষতিপূরণ পাননি বলে অভিযোগ করেছেন। তাঁদের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। নিয়ম মেনেই কাজ চলছে।