সরকারি আইনজীবীকে কলার ধরে হেনস্তার অভিযোগ, উত্তেজনা আদালতে

133

জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি জেলা আদালতে সরকারি আইনজীবী তপন ভট্টাচার্যকে হেনস্তার অভিযোগ উঠল জেলা সিপিএম সম্পাদক সলিল আচার্যের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, শুক্রবার বনধ সমর্থকদের সরিয়ে আদালতে প্রবেশ করতে গেলে বাম ও কংগ্রেস পিকেটাররা তাঁর স্কুটার আটকে দেন। এই নিয়ে দীর্ঘক্ষণ বচসা চলে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই পক্ষের বচসা থামাতে হিমসিম খায়। জেলা তৃণমূল লিগ্যাল সেলের ভাইস প্রেসিডেন্ট সোমনাথ পালের অভিযোগ, জেলা সিপিএম সম্পাদক সলিল আচার্য তপন ভট্টচার্যের কোটের কলার ধরে হেনস্তা করে। এমনকি আইনজীবীর স্কুটারে ভাঙচুর চালানো হয়।

তপন ভট্টাচার্য জানান, জেলা সিপিএম সম্পাদক ও তাঁর সমর্থকরা হেনস্তা করেছে। তার স্কুটারের নেমপ্লেট ভাঙা হয়েছে। ঘটনার কথা অস্বীকার করে জেলা সিপিএম সম্পাদক ও জেলা বামফ্রণ্টের আহ্বায়ক সলিল আচার্য জানান, তাঁরা গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন করছিলেন। মিথ্যে অপপ্রচার করা হচ্ছে। যা হবে আদালতে দেখা যাবে। জানা গিয়েছে, পুলিশ ঘটনাস্থলে থাকাকালীন বনধ সমর্থকরা তপনবাবুকে গাছের ডাল দিয়ে সংবর্ধনা জানিয়ে ব্যঙ্গ করে আদালতে ঢুকতে দেন।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, গতকাল বাম-কংগ্রেসের ছাত্র ও যুব শাখার নবান্ন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড বাধে কলকাতায়। পুলিশের লাঠিচার্জে আহত হন বহু বাম-কংগ্রেস সমর্থক। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ধর্মতলা চত্বর। ঘটনার প্রতিবাদে এদিন ১২ ঘণ্টার বাংলা বনধের ডাক দেয় বামেরা। তাতে সমর্থন জানায় কংগ্রেস।