শারদীয়ার আমেজ ছড়িয়ে শুরু খুঁটি পুজো

200

উত্তরবঙ্গ ব্যুরো: জন্মাষ্টমীর পুণ্যলগ্নে আসন্ন দুর্গাপূজার খুঁটি পুজো সারল রায়গঞ্জের বিপ্লবী ক্লাব। সোমবার দুপুর দেড়টায় শহরের পশ্চিম বীরনগরের পুজো প্রাঙ্গণে এই খুঁটি পুজো সম্পন্ন হয়। প্রবল বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে এদিন খুঁটি পুজো দেখতে উপস্থিত হয়েছিলেন সকলে। উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জের পুরপ্রধান সন্দীপ বিশ্বাস, করনদিঘির বিধায়ক গৌতম পাল, স্থানীয় কাউন্সিলার তপন দাস, চৈতালি ঘোষ সাহা প্রমুখ। এবছর তাদের পুজো ৫৩তম বর্ষে পড়ল। পুজোর থিম হিসেবে কাল্পনিক কৈলাশ পর্বত বানানো হচ্ছে। পর্বতের একদম উপরে দেবাদিদেব মহাদেব বসবেন। তার নীচে পর্বতের ভেতরে দেবী দূর্গা থাকবেন।

ক্লাবের সম্পাদক সানকিং দাস জানান, করোনা মহামারির কথা চিন্তা করে গত বছরের মতো এবছরও আমরা ওপেন বা খোলা প্যান্ডেল তৈরি করছি। দর্শনার্থীদের প্রবেশ পথে স্যানিটাইজার গেট যেমন বসানো হবে। ঠিক তেমনই দর্শনার্থীদের মধ্যে মাস্কও বিতরণ করা হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ক্লাবের স্বেচ্ছাসেবকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবেন। তারাই দর্শনার্থীদের ভীড় নিয়ন্ত্রণ করবেন। পুজো উদ্যোক্তাদের তরফে জানানো হয়েছে, পুজো উপলক্ষ্যে দুঃস্থ মানুষদের মধ্যে বস্ত্র বিতরণ করা হবে।

- Advertisement -

শারদীয়ার আমেজ ছড়িয়ে শুরু খুঁটি পুজো| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

অন্যদিকে, এদিন খুঁটি পূজার মধ্য দিয়ে শারদ উৎসবের সূচনা করল চাঁচল ইয়ুথ ক্লাব পুজো কমিটি। মহামারির কারণে কম বাজেটের সেরা পুজো করার ভাবনা রেখেছে চাঁচলের ইয়ুথ ক্লাব।

চাঁচল ইয়ুথ ক্লাবের এক সদস্য তপন ভোজ জানান, দুর্গা পুজো আর মাত্র মাস দেড়েক বাকি। ইতিমধ্যেই সমস্ত পুজো কমিটি খুঁটি পুজো সারছেন। প্রতিবছর এই ক্লাবের ভাবনা থাকে আলাদা। চাঁচলের বিগ বাজেটের পুজোর মধ্যে বড় পুজো চাঁচলের ইয়ুথ ক্লাব। মণ্ডপ শয্যা থেকে প্রতিমা সবকিছুতে নজর কাড়েন তাঁরা।

শারদীয়ার আমেজ ছড়িয়ে শুরু খুঁটি পুজো| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

অন্যদিকে, এদিন ৫৯তম বার্ষিক দুর্গোৎসবের খুঁটি পূজার আয়োজন করল মাথাভাঙ্গা শহরের চৌপথি সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটি। এদিন সকালে পূজা কমিটি পুরোহিত সঞ্জীব রায়ের মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে সমস্ত ধর্মীয় রীতি মেনে খুঁটি পূজার আয়োজন করা হয়। পুজো কমিটির সদস্যদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন পূজা কমিটির সম্পাদিকা কল্যাণী পোদ্দার।

কল্যাণী পোদ্দার জানান, চৌপথি সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটির দুর্গাপূজা মাথাভাঙ্গা শহরের প্রাচীন পূজাগুলির মধ্যে অন্যতম। গতবছর করোনা অতিমারির কারণে সেভাবে পুজোতে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণ সম্ভব হয়নি। তবে এলাকার বাসিন্দারা বছরভর দুর্গাপূজার দিনগুলির জন্য অপেক্ষা করে থাকেন। সেকথা মাথায় রেখেই সরকারের করোনাবিধি মেনে এবছর পুজোর প্রস্তুতি ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।