পরিযায়ীদের কাজ দেওয়া  নিয়ে  প্রশ্ন উত্তরের জেলায়

283
প্রতীকী ছবি

চাঁদকুমার বড়াল, কোচবিহার : নামেই ১০০ দিনের কাজ। যত পরিবারের জব কার্ড রয়েছে তার প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষেরই ১০০ দিন করে কাজ জোটে না। উত্তরের চার জেলা কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং দার্জিলিং জেলার শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদে শেষ তিনটি আর্থিক বছরের সরকারি পরিসংখ্যানে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। যেখানে সিংহভাগ জব কার্ডধারীই সারাবছরে ১০০ দিন করে কাজ পাচ্ছেন না সেখানে পরিযায়ী শ্রমিকরা কীভাবে ১০০ দিনের কাজ পাবেন। সেই প্রশ্নই উঠে আসছে।

২০১৯-২০ আর্থিক বর্ষে কোচবিহার জেলায় ১০০ দিন কাজ পেয়েছে ৮ হাজার ৭৬৩টি পরিবার। অথচ এই জেলায় এই অর্থবর্ষে ৬ লক্ষ ১৫ হাজার ২০৩টি পরিবারের কাছে জব কার্ড ছিল। তার মধ্যে প্রায় সাড়ে চার লক্ষ অ্যাক্টিভ জব কার্ড ছিল। অর্থা‌ৎ ৫ শতাংশ পরিবারও গোটা বছরে ১০০ দিন কাজ পায়নি। এই আর্থিক বর্ষে আলিপুরদুয়ার জেলায় জব কার্ডধারী পরিবারের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার ৭৩টি। তার মধ্যে মাত্র ১৫ হাজার ৪২২টি পরিবার ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। জলপাইগুড়ি জেলায় ৪ লক্ষ ৩১ হাজার ৮টি পরিবারের জব কার্ড ছিল। এর মধ্যে ৯ হাজার ৮০৬টি পরিবার ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ এলাকায় ৯৮ হাজার ৬৬৮টি পরিবারের জব কার্ড ছিল। কাজ পেয়েছে ৩ হাজার ৩৪৪টি পরিবার।

- Advertisement -

২০১৮-১৯ আর্থিক বর্ষে কোচবিহার জেলায় ৬ লক্ষ ৮ হাজার ৩৮৬টি পরিবারের জব কার্ড ছিল। এর মধ্যে ৬৩ হাজার ১২৭টি পরিবার ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। আলিপুরদুয়ার জেলায় ৩ লক্ষ ৪২৭টি পরিবারের হাতে জব কার্ড ছিল। কিন্তু ৫৩ হাজার ১৫২টি পরিবারই ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। জলপাইগুড়ি জেলায় ৪ লক্ষ ২৭ হাজার ২৫৩টি পরিবারের জব কার্ড ছিল। কিন্তু ৪২ হাজার ৩৩৮টি পরিবার ১০০ দিন করে কাজ পেয়েছে। শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ এলাকায় ৯৭ হাজার ৪৫২টি পরিবারের মধ্যে ৫ হাজার ৬২২টি পরিবার ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। ২০১৭-১৮ আর্থিক বর্ষে কোচবিহার জেলায় ৫ লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৮১ জব কার্ডধারীর মধ্যে ২০ হাজার ৮৮৩টি পরিবার ১০০ দিন কাজ পেয়েছে। আলিপুরদুয়ারে ২ লক্ষ ৯২ হাজার ৮০টি পরিবারের মধ্যে ২০ হাজার ১৪৫টি পরিবার, জলপাইগুড়িতে ৪ লক্ষ ১৪ হাজার ৮৯১টি পরিবারের মধ্যে ২৮ হাজার ১৮টি পরিবার এবং শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ এলাকায় ৯৬ হাজার ৫১৬টি পরিবারের মধ্যে ২ হাজার ৭৩১টি পরিবার ১০০ দিন করে কাজ পেয়েছে।

প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ১০০ দিনের কাজে পরিবার হিসেবে পরিসংখ্যান তৈরি হয়। দেখা যাচ্ছে, যত পরিবারের হাতে জব কার্ড রয়েছে তাদের সিংহভাগই বছরে ১০০ দিন করে কাজ পায় না। গড়ে ৫০ থেকে ৭০ দিন কাজ পায়। তারপর যদি একটি পরিবারে দুজন থাকেন তাহলে তাঁরা ১০০ দিনের মধ্যেই ভাগাভাগি করে কাজ পাবেন। তাই ১০০ দিনের কাজের প্রকল্প নাম দিলেও বাস্তবে কিন্তু ১০০ দিন করে কাজ পাচ্ছে না লক্ষ লক্ষ পরিবার। আর এই পরিস্থিতিতে এখন পরিযায়ী শ্রমিকদের ১০০ দিনের কাজ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

এক সরকারি আধিকারিক বলেন, যত জব কার্ড রয়েছে তার মধ্যে গড়ে ৭৫ শতাংশ অ্যাক্টিভ। তাদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে কাজ দেওয়া হয়। সবাইকে ১০০ দিন কাজ দেওয়া সম্ভব নয়। কারণ কেন্দ্রীয় সরকার লেবার বাজেট ও টার্গেট ঠিক করে দেয়। তবে করোনার জন্য এবার ডবল কাজ করার অনুমতি রয়েছে। পরিযায়ীদের বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে। তাঁরা কাজ চেয়ে আবেদন করলে কাজ পাবেনই।