নাটাবাড়িতে ৫০টি বুথ নিয়ে চিন্তিত রবি ঘোষ

100

গৌরহরি দাস, কোচবিহার : গত ১০ বছর ধরে নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক রয়েছেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। এবারও তাঁকেই নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রবিবাবু প্রার্থী হিসাবে তাঁর কেন্দ্রে জোর প্রচারও চালাচ্ছেন। কিন্তু তাঁর বিধানসভা কেন্দ্রের  ৫০টি বুথ নিয়ে চিন্তায় রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। কারণ, গত লোকসভা নির্বাচনে এই বুথগুলিতে পিছিয়ে ছিল তৃণমূল কংগ্রেস। আর ভোটের মুখে এখনও এই বুথগুলিতে গুছিয়ে উঠতে পারেনি তৃণমূল। যা মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে রবিবাবুর।

রবিবার তিনি নিজের বিধানসভা কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ নেতা-কর্মীদের নিয়ে একটি কর্মীসভা করেন। সেখানে সংবাদমাধ্যমের প্রবেশাধিকার ছিল না। তবে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, কর্মীসভায় রবিবাবু সেই ৫০টি বুথের পিছিয়ে থাকা নিয়ে কিছুটা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। গত লোকসভা ভোটে তৃণমূল যে সমস্ত বুথে পিছিয়ে ছিল, তার মধ্যে অধিকাংশ বুথ তারা মেরামত করে ফেললেও এই ৫০টি বুথে তাদের অবস্থা এখনও খারাপ। যা নিয়ে রবিবাবু উষ্মা প্রকাশ করেছেন। জানা গিয়েছে, বুথগুলির অবস্থা ভালো করার জন্য দলীয় নেতত্বকে তিনি কঠোর নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি বুথগুলিতে মনিটরিং করতে বলেছেন। প্রতি সাতদিন অন্তর তার রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

- Advertisement -

পাশাপাশি অধিকাংশ অঞ্চলে এখনও পর্যন্ত টোটোর কোনও কমিটি গঠন না হওয়া নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। এছাড়াও বৈঠকে স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও মহিলাদের দলের কাজে বেশি করে নামানোর নির্দেশ দিয়েছেন রবিবাবু। সব মিলিয়ে তিনি দলের নেতা-কর্মীদের নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঝাঁপিয়ে পড়তে বলেছেন এদিনের কর্মীসভায়। কর্মীসভা নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে রবিবাবু বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে একজন কর্মীকে কী ধরনের কাজ করা উচিত, কীভাবে নির্বাচনি প্রচার করে দলকে সাফল্যের মুখ দেখানো যায়, সেই টোটকাগুলি তাঁদেরকে দিয়েছি। ৫০টি বুথের খারাপ অবস্থা নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি কোনও মন্তব্য করতে চাননি।