সময়ের আগেই রাফায়েল আসছে হাসিমারায়

154

নয়াদিল্লি : রাফায়েল শক্তিতে শক্তিমান হওয়া এখন হাসিমারার শুধু সময়ের অপেক্ষা। আগামী সপ্তাহের শেষ দিকে ভারতে পৌঁছে যাবে আরও ৬টি রাফায়েল যুদ্ধবিমান। এর মধ্যে দুটি আসবে ডুয়ার্সের হাসিমারায়। সন্দেহ নেই, এতে হাসিমারা বিমানঘাঁটির সামরিক শক্তি বৃদ্ধি হবে কয়েক গুণ। চিনের সঙ্গে বিবাদের পরিপ্রেক্ষিতে হাসিমারার এই ঘাঁটিটি বরাবরই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। শিলিগুড়ি করিডরের কাছে ঘাঁটিটি শক্তিশালী হলে দেশের উত্তর প্রান্ত থেকে পূর্বাঞ্চলে, বিশেষ করে সিকিম বা অরুণাচলপ্রদেশে আঘাত এলে মোকাবিলা করা অনেক সহজ হবে।

এমনিতেই চলতি মাসের শেষে রাফায়েলের হাসিমারায় চলে আসার কথা ছিল। কিন্তু পরিবর্তিত কর্মসূচিতে প্রায় এক সপ্তাহ আগেই যুদ্ধবিমানগুলি চলে আসছে। ২১ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার দক্ষিণ-পশ্চিম ফ্রান্সের মেরিনিয়াক বোরডুঁ বায়ুসেনা ঘাঁটি থেকে ৬টি রাফায়েল ভারতের উদ্দেশে রওনা করিয়ে দেবেন ভারতের বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল রাকেশকুমার সিং ভাদুড়িয়া। তাঁর ফ্রান্স সফরের জন্যই এই রাফায়েলগুলি আনার সময়সূচি এগিয়ে গেল প্রায় এক সপ্তাহ।

- Advertisement -

বায়ুসেনা প্রধান আগামী বুধবার ২০ এপ্রিল ফ্রান্সে পৌঁছোবেন। সেদেশে তাঁর ২৩ তারিখ পর্যন্ত সফর নির্ধারিত আছে। রাফায়েল চুক্তি ঘিরে বিতর্কের শেষ নেই। এই চুক্তিতে অনৈতিক লেনদেনের অভিযোগ উঠেছে বারবার। কংগ্রেস, বিশেষ করে রাহুল গান্ধি এই বিষয়ে বারবার অভিযোগ তুলেছেন। মাঝে বিতর্কটি ধামাচাপা পড়লেও মাত্র কিছুদিন আগে আবার প্রশ্ন ওঠে। এই বিতর্কের মাঝেই ভারতে আসছে আরও ৬টি রাফায়েল যুদ্ধবিমান।

এই ৬টি চলে এলে ভারতের শক্তি বাড়ানোর জন্য মজুত হয়ে যাবে ২০টি রাফায়েল। এর মধ্যে ৪টি থাকবে আম্বালা বিমানঘাটিতে। এর ফলে আম্বালায় রাফায়েলের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াবে ১৮। আপাতত দুটি হাসিমারায় পাঠানো হলেও সংখ্যাটা খুব শীঘ্র বাড়বে। চুক্তি অনুযায়ী, ভারতের মোট ৩৬টি রাফায়েল পাওয়ার কথা। আরও যে ১৬টি পরবর্তীকালে আসবে সেগুলো হাসিমারাতেই আনা হবে বলে জানা গিয়েছে। হাসিমারা বায়ুসেনা ঘাঁটিতে দ্বিতীয় রাফায়েল স্কোয়াড্রন তৈরি হচ্ছে।

সন্দেহ নেই যে, রাফায়েলের দ্বিতীয় স্কোয়াড্রন হিসেবে হাসিমারাকে বেছে নেওয়ার নেপথ্যে ভারত-চিন সীমান্ত বিবাদ অন্যতম প্রধান অনুঘটক হিসাবে কাজ করেছে। উত্তর সীমান্ত পরিস্থিতির দিকে নজর রেখে পানাগড়ে সি-১৩০ জে সুপার হারকিউলিস (৮৭ নম্বর স্কোয়াড্রন) তৈরি হয়েছে আগেই। এবার শিলিগুড়ি করিডরের দিকে নজর রেখে হাসিমারা বায়ুসেনা ঘাঁটির শক্তিবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এই ৬টি আসার পর এক মাসের মধ্যে আরও ৪টি রাফায়েল ভারতের হাতে আসবে বলে জানা গিয়েছে। ফ্রান্সের দাসো অ্যাভিয়েশন সংস্থার আধিকারিকরা জানিয়েছেন, মে মাসে ওই ৪টি রাফায়েল পাঠানো হবে। ২০১৬ সালে ফ্রান্সের সঙ্গে মোট ৩৬টি রাফায়েল কেনার চুক্তি করেছিল ভারত। এর ফলে দুদেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত সহযোগিতা সহ নানা বিষয়ে সম্পর্ক গভীর হয়েছিল। ভারতীয় আধিকারিকরা জানিয়েছেন, বিতর্ক এড়াতে ভবিষ্যতে সামরিক সরঞ্জাম কেনার বিষয় চূড়ান্ত হবে দুই দেশের সরকারের মধ্যে আলোচনার ভিত্তিতে। মধ্যস্থতাকারী বা লবিস্টদের এড়াতে এই সিদ্ধান্তে সহমত হয়েছে দুই দেশের সরকার।

প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে সহযোগিতা অনেক প্রসারিত হওয়ার সম্ভাবনা আছে। কেন-না, ফরাসি সরকার সেদেশে সামরিক উপকরণ বিক্রির ব্যবসায় হস্তক্ষেপ করে না। খুব শিগগিরই দুদেশের শীর্ষস্তরে আলোচনার সম্ভাবনাও আছে। আগামী ৭ মে ভারত-ইউরোপীয় ইউনিয়ন সম্মেলন উপলক্ষ্যে পর্তুগালে যাওয়ার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রোঁরও ওই সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা। তখন দুজনের মধ্যে আলোচনা হতে পারে।