নয়াদিল্লি, ১৪ নভেম্বরঃ কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধিকে সতর্ক করে দিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে চলা মানহানি ও আদালত অবমাননার মামলা বন্ধ করে দিল সুপ্রিমকোর্ট। শীর্ষ আদালত বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, রাহুল গান্ধি দেশের একজন শীর্ষ রাজনীতিক। ভবিষ্যতে তিনি যেন আরও সতর্ক হয়ে মন্তব্য করেন। লোকসভা নির্বাচনের সময় তত্কালীন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি স্লোগান দিয়েছিলেন, ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’। তাঁর অভিযোগ ছিল, রাফায়েল যুদ্ধবিমান কেনার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘনিষ্ঠ শিল্পপতি অনিল আম্বানিকে বিশেষ সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিমকোর্টে রাফায়েল চুক্তি সংক্রান্ত মমলা চলাকালীন সুপ্রিমকোর্টে কয়েকটি নথি পেশ করতে আপত্তি জানায় কেন্দ্র। কিন্তু সেই আপত্তি খারিজ করে দেয় আদালত। এর প্রেক্ষিতেই রাহুল মন্তব্য করে বসেন, সুপ্রিমকোর্টও মেনে নিয়েছে, চৌকিদার চোর হ্যায়। এরপরই প্রধানমন্ত্রীর মানহানি ও সুপ্রিমকোর্টের অবমাননা করা হয়েছে, এই অভিযোগ করে সুপ্রিমকোর্টে মামলা করেন বিজেপি নেত্রী মীনাক্ষি লেখি। সুপ্রিমকোর্ট জানিয়ে দেয় রাফায়েল মামলা চলাকালীন কখনও বলা হয়নি, চৌকিদার চোর হ্যায়। পরে আদালতে নিঃশর্তে ক্ষমা চাল রাহুল। তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রচারের সময় উত্তেজনার বশে তিনি ওই মন্তব্য করে ফেলেছেন। সুপ্রিম কোর্টকে অসম্মান করার কোনও ইচ্ছা তাঁর ছিল না। সুপ্রিম কোর্টের মন্তব্যের পরেই ওই কথা বলা তাঁর উচিত হয়নি। বৃহস্পতিবার রাফায়েল নিয়ে রায় দেওয়ার পাশাপাশি রাহুলের মামলার প্রসঙ্গও ওঠে। রাহুলকে সতর্ক করে মামলা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান বিচারপতিরা।