রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের রক্তের ভাঁড়ার শুন্য

83

রায়গঞ্জ: রক্তের চরম সংকট দেখা দিয়েছে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে। মঙ্গলবার থেকে একেবারেই রক্তশূন্য ব্লাড ব্যাংক। গত দু’দিন ধরে ব্লাড ব্যাংকে কোনও গ্রুপেরই রক্ত নেই। সবচেয়ে অসহায় অবস্থায় পড়েছে থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত শিশুরা। রক্তের অভাবে সব রকম অপারেশনও আপাতত বন্ধ রায়গঞ্জ মেডিকেল ও কলেজে। এই অবস্থায় উদ্বিগ্ন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রতি মাসে গড়ে ১২০০ বোতল করে রক্ত লাগে। বিভিন্ন গণসংগঠন ও বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে আয়োজিত রক্তদান শিবির গুলির মাধ্যমেই এই রক্ত সরবরাহ করা হয়। শুক্রবার থেকে মজুত রক্ত একেবারেই শেষ হয়ে গিয়েছে। এই মুহূর্তে কোনও রোগীর রক্ত লাগলে ব্লাড ব্যাংক থেকে তা সরবরাহ করা যাবে না। বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটলে চরম সংকটে পড়তে হবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।

- Advertisement -

রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারি অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায় বলেন, ‘রক্ত সংকট মোকাবিলায় সম্প্রতি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলিকে নিয়ে বৈঠকে বসা হবে। সেই মোতাবেক এদিন চিঠি করা হয়েছে। পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠনকে অনুরোধ করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই তাদের কাছে ব্লাড ব্যাংকে রক্ত সরবরাহের জন্য আবেদন জানানো হয়েছে। আশা করছি শীঘ্রই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।’