খাবারের টাকা কোথায়? ফের বড়সড়ো দুর্নীতির অভিযোগ রায়গঞ্জ মেডিকেলে

126

রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগ সামনে আসছে। এবার মেডিকেলে স্বাস্থ্যকর্মীদের খাবারের টাকা নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠল।

মেডিকেলের স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসক, নার্সদের একাংশের অভিযোগ, এইবছর কোভিডের কাজে যুক্ত নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, চিকিৎসকদের জন্য ২১ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়। সেই মোতাবেক রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের মিশন ডিরেক্টর ড: সৌমিত্র মোহন গত মাসের ২১ তারিখে একটি অর্ডার প্রতিটি মেডিকেল কলেজে ইমেল মারফত পাঠিয়ে দেন। দিনের পর দিন পার হয়ে গেলেও স্বাস্থ্যকর্মী, নার্সদের ওই টাকা থেকে খাওয়ানো হয়নি বলে অভিযোগ। এরপর প্রত্যেক স্বাস্থ্যকর্মী ও নার্সরা মেডিকেলের সহকারি সুপার সৌম্য রাউতের দ্বারস্থ হন। তিনি প্রত্যেককে আলাদাভাবে অভিযোগ জানাতে বলেন। চলতি মাসের ৯ তারিখ প্রত্যেক স্বাস্থ্যকর্মী লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর চলতি মাসের ১২ তারিখ থেকে প্রায় ১৭০ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়। যদিও মাঝে ২১ দিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও সেই দিনগুলির খাওয়া বাবদ বরাদ্দ টাকা কোথায় গেল তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। মেডিকেল কলেজের সহকারি সুপার সৌম্য রাউত জানান, এই বিষয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের লিখিতভাবে মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষকে জানাতে বলা হয়েছে। রায়গঞ্জ মেডিকেলের নোডাল অফিসার বিপ্লব হালদার জানান, গত মাসের ২১ তারিখে অর্ডার বের হলেও চলতি মাসের ১১ তারিখ থেকে খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর্মীদের অভিযোগ, গতবছর ১২ লক্ষ টাকা কোভিড যোদ্ধাদের জন্য বরাদ্দ হলেও এক টাকাও খরচ করা হয়নি। যদিও বিপ্লব হালদারের বক্তব্য, ১২ লক্ষ টাকার মধ্যে ৫ লক্ষ টাকার কোভিডের সরঞ্জাম কেনা হয়েছিল।

- Advertisement -