রায়গঞ্জ পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীদের কর্মবিরতি

116

রায়গঞ্জ: শুক্রবার রায়গঞ্জ পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা বেতন বৃদ্ধি সহ একগুচ্ছ দাবি দাওয়ার ভিত্তিতে কর্মবিরতি পালন করেন। অভিযোগ, ২০১৩ সালের পর তাদের আর বেতন বৃদ্ধি হয়নি। খুব সামান্য টাকায় তাদের কাজ করতে হচ্ছে। তা দিয়ে সংসার চালানো অসম্ভব হয়ে উঠেছে। এদিন মাতৃসদনের কর্মীরা হাতে প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ দেখানোর পাশাপাশি কর্মবিরতি পালন করেন।

আন্দোলনকারীদের নেতা তমাল কয়াল জানান, ১৯৯৯ সাল থেকে রায়গঞ্জ পুরসভার অধীনে স্বাস্থ্য দপ্তরের এই প্রজেক্ট চালু হয়েছে। ২০১৩ সালে ২৫ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি হলেও এখন কেউ পায় ২৭০০ টাকা, আবার কেউ ৩০০০ টাকা। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির ফলে এই টাকায় সংসার চালাতে আমাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে। এ বিষয়ে অনেকবার চেয়ারম্যানকে জানানো হলেও, তিনি প্রজেক্টে গিয়ে তদ্বির করলেও তাঁদের দাবিপূরণ হয়নি। তিনি বলেন, ‘এখান থেকে ৫টি ফাইল পাঠানো হলেও দু’খানা ফাইলের অনুমোদন দিয়েছে। তিন খানা ফাইলের অনুমোদন দেয়নি। তা সত্বেও কম বেতনে করোনা পরিস্থিতিতে আমরা ঝাপিয়ে পড়েছি রায়গঞ্জবাসীর স্বার্থে। যদি এভাবে চলতে থাকে তাহলে আমাদের পক্ষে কাজ চালানো সম্ভব নয়। তাই আমরা আজ কর্মবিরতি করেছি। এরপরেও যদি সমস্যা না মেটে তাহলে বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হব।‘

- Advertisement -