টয়ট্রেনেই বিশ্বকর্মার পুজো করলেন রেলকর্মীরা

108

শিলিগুড়ি: আজ দেব শিল্পী বিশ্বকর্মার পুজো। এদিন শিলিগুড়ি জংশনে টয়ট্রেনে বিশ্বকর্মার পুজো করেন কর্মীরা। রীতিমতো নিয়ম মেনে চলে মন্ত্রোচ্চারণ পুজো ও প্রসাদ খাওয়া। দেবলোকে ইঞ্জিনিয়ার বলে কথিত আছেন বিশ্বকর্মা। সাধারণত যন্ত্রের সঙ্গে যে পেশার যোগ রয়েছে সেখানেই বিশ্বকর্মার পুজো করা হয়। তাই শিলিগুড়ি জংশনে টয়ট্রেনে বিশ্বকর্মা পুজোর আয়োজন করেন কর্মীরা। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর ফের পাহাড়ি পথে চালু হয়েছে টয়ট্রেন। এতে একদিকে যেমন কর্মীরাও খুশি তেমনি খুশি পর্যটকরাও। তাই বিশ্বকর্মা পুজোর দিনে কর্মীদের প্রার্থনা, যেন আগামী দিনেও প্রতিকূলতা সামলে চলতে পারে টয়ট্রেন।

এছাড়াও এদিন উত্তরবঙ্গের অন্যত্রও বিশ্বকর্মার পুজো করা হয় নিয়ম মেনেই। তবে করোনা আবহে এবার উন্মাদনায় কিছুটা ঘাটতি ছিল সর্বত্রই। একই দিনে বিশ্বকর্মা পুজোর পাশাপাশি ছিল আদিবাসীদের করম পুজোও। বীরপাড়ার চা বাগান মহল্লায় সকাল সকাল বিশ্বকর্মা পুজো সেরে করম পুজোর প্রস্তুতিতে লেগে পড়েন অনেকেই। রায়গঞ্জেও উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থায় এদিন বিশ্বকর্মা পুজো হয়। রীতিমতো আচার মেনে পুজো হলেও সেই উন্মাদনা ছিল না। কোভিড বিধি মেনে পুজোয় উচ্ছ্বাস খানিকটা কম বলেই জানিয়েছেন কর্মীরা।

- Advertisement -