দুই নাবালিকাকে তিনদিন ধরে লাগাতার গণধর্ষণের অভিযোগ, অভিযোগ অস্বীকার পুলিশের

1718
প্রতীকী ছবি

জয়পুর: উত্তরপ্রদেশের হাথরসে দলিত কন্যার নৃশংস গণধর্ষণ ও মৃত্যুর পর এবার রাজস্থানেও সামনে এলো আরও এক গণধর্ষণের ঘটনা। দুই নাবালিকাকে অপহরণ করে লাগাতার তিনদিন গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল দুই নাবালক সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে।

যদিও পুলিশের দাবি ওই দুই নাবালিকা নাকি জবানবন্দিতে ধর্ষণের কথা অস্বীকার করেছে। ওই দুই নাবালিকার বাবা পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান, অভিযুক্ত দুই কিশোর দুই কন্যাকে ১৮ সেপ্টেম্বর রাতে জেলার বাইরে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রলুব্ধ করে। এরপর তাদের প্রথমে জয়পুর ও পরে কোটায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তিনদিন ধরে ওই দুই নাবালক ও আরও তিনজন যুবক মিলে দুজনকে গণধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ২১ সেপ্টেম্বর তাদের কোটা থেকে উদ্ধার করা হয়।

- Advertisement -

পুলিশের দাবি, বয়ান দিতে গিয়ে গণধর্ষণের কথা অস্বীকার করে দুই নাবালিকা। জানা গিয়েছে, ক্যামেরার সামনে তারা নিজেরা জানিয়েছে, তাদের মাদক খাইয়ে গণধর্ষণ করা হয়। দুই নাবালিকার পরিবারের দাবি, পুলিশে না জানানোর জন্য তাদের হুঁশিয়ারি দেওয়া হচ্ছিল। পুলিশে অভিযোগ করা হলে অভিযুক্তদের ধরা হয়। দুই নাবালিকা পুলিশের কাছে সব ঘটনা জানালে, অভিযুক্তরা তাদের পুলিশের সামনেই হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। এরপর পুলিশের তরফে দাবি করা হয় যে, দুই নাবালিকা গণধর্ষণের বিষয়টি অস্বীকার করেছে। এই ঘটনায় ন্যায়বিচার চেয়ে দোষীদের শাস্তির দাবি করেছে ধর্ষিতার পরিবার। এমনিতেই হাথরসের ঘটনায় দেশজুড়ে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে, তার ওপর ফের আরও একটি ঘটনা মেয়েদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন তুলে দিয়েছে বিভিন্ন মহলে।