জল্পনা বাড়িয়ে কুণালের বাড়িতে রাজীব

157

কলকাতা: জল্পনা বাড়িয়ে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের বাড়িতে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার হঠাৎই তিনি কুণালের বাড়িতে হাজির হন। এতে রাজ্য রাজনীতিতে জল্পনা শুরু হয়েছে। যদিও রাজীব ও কুণালের বক্তব্য, এটা নেহাতই সৌজন্যমূলক সাক্ষাৎ। শুক্রবারই পদ্ম-সঙ্গ ত্যাগ করে তৃণমূলে ফিরেছেন দলের একসময়ের সেকেন্ড-ইন কমান্ড মুকুল রায়। এবার প্রশ্ন উঠছে, মুকুলের পথে হেঁটে এবার কি ঘরে ফিরতে চলেছেন প্রাক্তন মন্ত্রী? যদিও সে প্রশ্নের উত্তর খোলসা করেননি রাজীব।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। দল তাঁকে ডোমজুড়ে প্রার্থী করে। কিন্তু তিনি হেরে যান। ভোটের আগে রাজীবকে দলের নির্বাচনি জনসভাগুলিতে নিয়মিত দেখা গেলেও পরবর্তীতে তাঁকে দলীয় কর্মসূচিতে সক্রিয়ভাবে দেখা যায়নি। গত মঙ্গলবার নিজের দলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক টুইট করেন রাজীব।

- Advertisement -

টুইটে রাজীব লিখেছিলেন, ‘সমালোচনা তো অনেক হল। মানুষের বিপুল জনসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে, কথায় কথায় দিল্লি, আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভালোভাবে নেবে না। আমাদের সকলের উচিত, রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে ‘কোভিড‘ ও ‘ইয়াস‘, এই দুই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।‘ সেদিন থেকেই তাঁর রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে জল্পনা শুরু হয়।

জল্পনার মাঝেই এদিন কুণাল ঘোষের বাড়িতে যান রাজীব। ফলে প্রশ্ন উঠছে, রাজীব কি তবে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন? শুক্রবার পুরোনো দলে ফিরেছেন মুকুল। এর আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া দীপেন্দু বিশ্বাস, সোনালী গুহ, সরলা মুর্মু সহ আরও বেশ কয়েকজন দলে ফেরার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। রাজীব সেরকম ইচ্ছে প্রকাশ না করলেও তিনি পরবর্তীতে কী পদক্ষেপ করেন, সেদিকেই নজর থাকবে রাজনৈতিক মহলের।