দূর্গাপুরে শুভেন্দুর রোড শো’য়ে জনজোয়ার

100

দূর্গাপুর, ১২ জানুয়ারিঃ তৃণমূল কংগ্রেসকে বাংলা থেকে আরও একবার উৎখাত করার ডাক দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। পশ্চিম বর্ধমান জেলার ইস্পাত নগরী দূর্গাপুরে মঙ্গলবার আসানসোল জেলা বিজেপির ডাকে হওয়া যোগদান মেলার সভা থেকে এভাবেই রাজ্যের শাসক দলকে আক্রমণ করলেন মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র। এদিন দূর্গাপুরের প্রান্তিকায় এই যোগদান মেলার আয়োজন করা হয়। সেখানে অন্যদের মধ্যে ছিলেন আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়, দূর্গাপুর, বর্ধমান – দূর্গাপুর, বাকুঁড়া ও ব্যারাকপুরের সাংসদ সুনীল মণ্ডল, সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া, ডাঃ সুভাষ সরকার, অর্জুন সিং ও জেলা বিজেপির সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুই, জেলা যুব মোর্চার সভাপতি অরিজিৎ রায়।

সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী আরও বলেন, আমি তৃণমূল কংগ্রেসে ততদিন ছিলাম, যতদিন সেটা একটা রাজনৈতিক দল ছিল। যখন বুঝলাম তৃণমূল কংগ্রেস প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি হয়ে গিয়েছে, তখন সেটা ছেড়ে বিশ্বের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল বিজেপিতে চলে এসেছি। এই দলে আমি এসেছি মাত্র তিন সপ্তাহ হল। কিন্তু, এরমধ্যেই আমি বিজেপি পরিবারের একজন হয়ে গিয়েছি। সবাই আমাকে আপন করে নিয়েছেন। সেজন্য বিজেপির কাছে আমি কৃতজ্ঞ। আমার একটাই লক্ষ্য এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলা থেকে তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করে বিজেপির হাতে তুলে দেওয়া। না হলে বাংলাকে বাঁচানো যাবে না।

- Advertisement -

শুভেন্দু আরও বলেন, আগে যখন তৃণমূল কংগ্রেসে ছিলাম, তখন সেই দলের একনিষ্ঠ কর্মী হিসাবে বলতাম বিজেপি হঠাও, দেশ বাঁচাও। আর এখন বলছি, তোলাবাজ ভাইপো হঠাও, বাংলা বাঁচাও। তৃণমূল কংগ্রেস না সরলে, এখানে আর গনতন্ত্র থাকবে না। আপনারা ভোটও দিতে পারবেন না। ২০১৭ সালের দূর্গাপুর পুরনিগমের নির্বাচনে কি হয়েছিল, তা সকলের জানা আছে। বিজেপি বাংলায় এলে পঞ্চায়েত ও পুর ভোট নিরপেক্ষতার সঙ্গে হবে। এই পশ্চিম বর্ধমান জেলার ৯টি বিধানসভায় বিজেপিকে জেতানোর জন্যে তিনি আহ্বান করেন।

শুভেন্দু বলেন, আমাকে কেন বাঁকুড়া ও পুরুলিয়ার দলের পর্যবেক্ষকের পদ থেকে সরানো হয়েছিল জানেন? যাতে ভাইপো সরাসরি এই এলাকার কয়লা ও বালির চোরাকারবারের টাকা সরাসরি পায়। লালা, এনামুল থেকে বিনয় মিশ্র পর্যন্ত গিয়েছে সিবিআই। এবার আর একটা চৌকাঠ। তাহলেই ভাইপো। এদিনের সভা থেকে কটাক্ষ করে তিনি জানান, লাল চুল, কানে দুল, তারই নাম যুব তৃণমূল। এদিনের সভায় পশ্চিম বর্ধমান জেলার বিভিন্ন এলাকার কয়েক হাজার তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী ও নেতা বিজেপিতে যোগদান করেছেন বলে শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেন।

এদিনের সভা শেষে প্রান্তিকা থেকে ভিড়িঙ্গি পর্যন্ত চার কিলোমিটার রাস্তায় রোড শো করা হয়। সেখানে হুডখোলা গাড়িতে ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী সহ বিজেপির নেতারা। শুভেন্দু অধিকারী রোড শোয়ে বেশ কিছুটা রাস্তা আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়ের বুলেটে ছিলেন।