৬ বছরের শিশুকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ!

149
প্রতীকী

বর্ধমান: রাতে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে এক আদিবাসী শিশুকন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এলাকার যুবকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনা জানাজানি হতেই সোমবার সকাল থেকে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে পূর্ব বর্ধমানের ভাতার থানার খেরুর গ্রামে। ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্ত যুবক। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের দাবিতে নির্যাতিতা ও তার মাকে সঙ্গে নিয়ে এলাকার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষজন এদিন ভাতার থানার দ্বারস্থ হন। তাঁরা ভাতার থানায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগও জানান। পুলিশ মামলা রুজু করে অভিযুক্ত যুবকের খোঁজ শুরু করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভাতারের খেরুর গ্রামেই বাড়ি নির্যাতিতা মেয়েটির। অন্যত্র কাজে যাওয়ায় রবিবার রাতে শিশুকন্যার বাবা-মা বাড়িতে ছিলেন না। বাড়িতে ছিল ৬ বছর বয়সি শিশুকন্যা ও তার দিদি। রাত ৮টা নাগাদ তারা বাড়িতে ঘুমাচ্ছিল। অভিযোগ, বাড়িতে বাবা-মা না থাকার সুযোগে ওই রাতে অভিযুক্ত যুবক মেয়েটির বাড়িতে যায়। এরপর মেয়েটির মুখে কাপড় বেঁধে তাকে মাঠে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। কোনওরকমে নিজের প্রাণ বাঁচিয়ে মেয়েটি রাত ১টায় বাড়ি ফিরে এসে তার দিদি ওই যুবকের কুকীর্তির কথা প্রতিবেশীদের জানায়। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজ চালানো হচ্ছে।

- Advertisement -