ছাউনি নিয়ে র‍্যাশন দোকান মালিক-গ্রাহকদের কোন্দল, অবরোধ জাতীয় সড়ক

148

গাজোল: র‍্যাশন দোকানের সামনে ছাউনি তৈরি নিয়ে মালিক ও গ্রাহকদের মধ্যে কোন্দল। বৃহস্পতিবার ঘটনার জেরে ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা দহিল মহিল এলাকায় ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। পরিস্থিতি চরমে উঠলে ঘটনাস্থলে আসে গাজোল থানার পুলিশ। পরবর্তীতে অবরোধকারীদের বুঝিয়ে জাতীয় সড়কের অবরোধ তুলে দেওয়া হয়। গ্রামবাসীদের দাবি, দোকানের সামনে গ্রাহকদের দাঁড়ানোর জন্য ছাউনির ব্যবস্থা করতে হবে। একইসঙ্গে সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী র‍্যাশন সামগ্রী বন্টন করতে হবে। তা না হলে আবার বিক্ষোভে শামিল হবেন তাঁরা।

লাগামছাড়া করোনা সংক্রমনের জেরে রাজ্যে জারি হয়েছে আংশিক লকডাউন। যার কিছুটা প্রভাব এসে পড়েছে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষদের মধ্যে। এই অবস্থায় সাধারণ মানুষের বড় ভরসার জায়গা সরকারি র‍্যাশন দোকান। বিনামূল্যে চাল, গম অনেকটাই ভরসা জোগাচ্ছে তাঁদের। গ্রাহকদের ভিড় সামাল দিতে গাজোল শহর এলাকার প্রায় প্রতিটি র‍্যাশন দোকান সকাল থেকে খুলে গিয়েছে। তবে, কিছু ব্যতিক্রম রয়েছে গ্রামাঞ্চলে। যার ফলে চরম অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। তেমনই এক র‍্যাশন ডিলার সাহাজাদপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার পিরপাড়া গ্রামের উর্মিলা প্রসাদ।

- Advertisement -

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, পিরপাড়া গ্রামের উর্মিলা প্রসাদের র‍্যাশন দোকানটি দেখাশোনা করে তাঁর ছেলে আশীষ প্রসাদ। কিন্তু কোনদিনই নির্দিষ্ট সময়ে দোকান খোলে না। প্রায় দিনই দোকান খোলা হয় সকাল ১০টা নাগাদ। এছাড়াও নির্দিষ্ট পরিমাণের থেকে কম র‍্যাশন সামগ্রী দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে এই দোকানের বিরুদ্ধে। গ্রামবাসীরা র‍্যাশন সামগ্রী সংগ্রহ করার জন্য সকাল ৬টা থেকে লাইন দিয়েও লাভ হয় না। কিন্তু র‍্যাশন দোকানের সামনে সেইরকম জায়গা না থাকার কারণে গ্রামবাসীরা পাশে এক ব্যক্তির জায়গায় গিয়ে জড়ো হন। কিন্তু এদিন দোকান মালিক তাঁদের সেখানে থাকতে দেননি। তা নিয়ে অশান্তি চরমে পৌঁছোয়।