এল ক্লাসিকোয় রিয়াল দাপট

বার্সেলোনা : দ্য শো মাস্ট গো অন।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো নেই। লিওনেল মেসি নেই। বিশ্বফুটবলে সবচেয়ে বেশি ভিউয়ারশিপ পাওয়া এল ক্লাসিকো আক্ষরিক অর্থেই তারকাবিহীন। ১১৯ বছরের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে জৌলুসহীন রিয়াল মাদ্রিদ-বার্সেলোনা দ্বৈরথ কিনা তা নিয়ে দিনভর চর্চা মাদ্রিদ থেকে ময়দান সর্বত্র।

- Advertisement -

বিশ্বফুটবলের দুই সেরা নক্ষত্র না থাকলেও ন্যু ক্যাম্পে তারকা হওয়ার মশলা মজুদ ছিল দুদলের মধ্যে। করিম বেঞ্জিমা, ভিনিসিয়াস জুনিয়ার থেকে আনসু ফাতি, গাভিকে ঘিরে রিয়াল-বার্সা সমর্থকদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনাও ছিল চোখে পড়ার মতো। পূর্বাভাস মিলিয়ে মেসি-রোনাল্ডোহীন এল ক্লাসিকোয় নজর টানলেন ভিনিসিয়াস, রডরিগোর মতো জেন-এক্স মুখ। তবে প্রথমার্ধে বার্সেলোনাকে ঘরের মাঠে টেক্কা দিল রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের ৩২ মিনিটে দাভিদ আলাবার গোলে ১-০ গোলে অগ্রগমন লস ব্ল্যাঙ্কোাজের।

বক্সের ঠিক বাইরে থেকে বাঁ-পায়ে নিখুঁত ফিনিশিং। আলাবার পা থেকে এমন গোল দেখতে এতদিন অভ্যস্ত ছিলেন বায়ার্ন মিউনিখ সমর্থক থেকে বুন্দেশলিগার দর্শকরা। রবিবার রিয়ালের জার্সিতে পাওয়া গেল অস্ট্রিয়ান তারকার ভিন্টেজ গোল। যদিও গোলের পিছিনে আসল কারিগর ভিনিসিয়াস। সঙ্গে ঝলক দেখা গেল সাম্বা-ম্যাজিকের। সেন্টার সার্কেলের ঠিক নীচ থেকে স্বদেশীয় রডরিগোকে ক্রস বাড়িয়েছিলেন ভিনি। সেখান থেকে বার্সা রক্ষণের জাল ভেদ করে আলাবাকে গোলের ঠিকানা লেখা পাস বাড়ান রডরিগো। বাকি কাজটা অনায়াসের সারেন আলাবা।

নির্ধারিত সময়ে শেষ মিনিটে ২-০ করলেন রিয়ালের লুকাস ভাসকুয়েজ। খেলা শেষের কয়েক সেকেন্ড আগে স্কোরবুকে নাম তুললেন সের্জিও আগুয়েরো। বার্সার জার্সিতে এটাই তাঁর প্রথম গোল। পাঁচ মাস পর প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে গোল পেলেন এই আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। কিন্তু তাতেও এল ক্লাসিকোয় হারের হ্যাটট্রিক এড়াতে পারল না রোনাল্ড কোয়েম্যানের দল।

আসলে দিনটা বার্সেলোনায় মেসির উত্তরসূরিদের ছিল না। ছিল ভিনিসিয়াসদের। এল ক্লাসিকোয় রিয়াল দাপট বজায় রেখে তারা বুঝিয়ে দিলেন লা লিগার ব্যাটন এখন তাঁদের হাতে।