রিয়াল মাদ্রিদের হারে ক্লাসিকোর স্বপ্ন ভাঙল

133

মালাগা: বৃহস্পতিবার রাতে স্প্যানিশ সুপার কাপের সেমিফাইনালে অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের কাছে ২-১ গোলে হারল রিয়াল মাদ্রিদ। জোড়া গোল করে বিলবাওয়ের জয়ের নায়ক রাউল গার্সিয়া। রিয়ালের গোলদাতা করিম বেঞ্জিমা। বুধবার অন্য সেমিফাইনালে পেনাল্টি শ্যুটআউটে রিয়েল সোসিয়েদাদকে হারিয়েছে বার্সেলোনা। ফলে এই ম্যাচে রিয়াল জিতলে আরও একটি এল ক্লাসিকো হত। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সমর্থকদের সেই স্বপ্ন পূরণ হল না।

এমনিতে রাউল গার্সিয়ার সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদের সম্পর্ক সবসমউই খারাপ। একটা সময় রাউল রিয়ালের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে ছিলেন। দীর্ঘদিন ওই ক্লাবে খেলার পাশাপাশি অধিনায়কও ছিলেন। ২০১৪ সালে রিয়ালকে হারিয়ে সুপার কাপ জেতে অ্যাটলেটিকো। সেই জয়ের ক্ষেত্রেও রাউলের অবদান ছিল। নতুন ক্লাব বিলবাওয়ের জার্সি গায়ে চড়ালেও রিয়ালের প্রতি সদয় হতে রাজি নন তিনি। চলতি মরশুমে রিয়ালের বিরুদ্ধে লা লিগার ম্যাচে মাথা গরম করে লাল কার্ডও দেখেছেন। এদিন অবশ্য মাথা ঠাণ্ডা রেখে খেললেন তিনি। আদতে সেন্ট্রাল মিডফিল্ডের ফুটবলার হলেও রিয়ালের বিরুদ্ধে খেললেন সেকেন্ড স্ট্রাইকার হিসেবে। ১৮ মিনিটে বাঁদিক থেকে মিডিও দানি গার্সিয়ার পাস থেকে ডান পায়ের নিখুঁত প্লেসমেন্টে বিলবাওকে এগিয়ে দেন। এরপর ৩৮ মিনিটে ডি-বক্সে তাঁকে ফাউল করেন রিয়ালের লুকাস ভাসকুয়েজ। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি রাউল।

- Advertisement -

এদিন জেতার জন্য বেঞ্জিমা, থিবো কুর্তোয়া সার্জিও র‌্যামোস, রাফায়েল ভারানে, এডেন হ্যাজার্ড, মার্কো আসেন্সিও, টনি ক্রুস, লুকা মদরিচ, কাসেমিরোর মতো সেরা তারকাদের মাঠে নামিয়েছিলেন রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান। কিন্তু বল দখলের লড়াইয়ে বিশাল ব্যবধানে (৭০-৩০) এগিয়ে থেকেও ম্যাচ হারল রিয়াল। ৭৩ মিনিটে বেঞ্জিমার গোলে ম্যাচ জেতার আশা ফের জীবন্ত হয়েছিল রিয়াল শিবিরে। কিন্তু শেষদিকে আসেন্সিওর শট ক্রসবারে লাগায় সেই আশা শেষ হযে যায়। তবে এদিনের হারের পর জিদানের কোচিং নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। চলতি মরশুমে একেবারে ধারাবাহিক নয় রিয়াল। চ্যাম্পিযান্স লিগে শাখতার ডোনেৎস্কের কাছে দুই লেগেই হেরেছে। লিগেও সম্প্রতি ওসাসুনা ও এলচের মতো দলের সঙ্গে ড্র করেছে। গত বছর সুপার কাপে হেরে কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দেকে বিদায় জানিয়েছিল বার্সেলোনা। অবস্থা ততটা গুরুতর না হলেও, জিদানের উপরে চাপ বাড়ছে।