জোট করে লড়াই নিয়ে কংগ্রেসে বিদ্রোহের সুর জলপাইগুড়িতে

94

জলপাইগুড়ি: জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেস দপ্তরে বসেই দলের জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করলেন জলপাইগুড়ি শহর কংগ্রেসের সভাপতি সহ বিদায়ি পুর বোর্ডের তিন কাউন্সিলার। জেলা কংগ্রেস সভাপতি পিনাকী সেনগুপ্ত জানিয়েছিলেন আসন্ন পুর নির্বাচনে কংগ্রেস জলপাইগুড়িতে এককভাবে লড়াই করবে। জেলা কংগ্রেস সভাপতির এই বক্তব্যকে চ্যালেঞ্জ করে শহর কংগ্রেস সভাপতি তথা বিদায়ি কাউন্সিলার অম্লান মুন্সি জানান, তাঁরা জোটবদ্ধভাবে লড়াই করতে বদ্ধপরিকর। এককভাবে লড়াই করবার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবার অধিকার জেলা কংগ্রেস সভাপতির নেই। প্রদেশ কংগ্রেস কিংবা অখিল ভারত কংগ্রেস কমিটি পুর নির্বাচনে জোট ভাঙার বিষয়ে কোনো বার্তা দেয়নি। জেলা কংগ্রেস সভাপতি ব্যাক্তিগত মতকে দলের বক্তব্য হিসেবে প্রচার করবার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার সঙ্গে তাঁরা সহমত নন। অম্লানবাবু জানান, অবিলম্বে জলপাইগুড়ি পুরসভার নির্বাচন ঘোষণা করতে হবে রাজ্য সরকারকে।

উল্লেখ্য জলপাইগুড়ি পুরসভায় বিদায়ি বোর্ডে কংগ্রেসের পাঁচজন কাউন্সিলার ছিলেন। ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার পরিমল মালো দাস প্রয়াত হয়েছেন। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেসের প্রাক্তন চার কাউন্সিলারের মধ্যে অম্লান মুন্সির পাশাপাশি বিমল পালচৌধুরী এবং বনো সরকার যেমন উপস্থিত ছিলেন তেমনি জেলা যুব কংগ্রেস সভাপতি ভোলা রাউতও উপস্থিত ছিলেন।

- Advertisement -