সাবধান! বেপরোয়া ড্রাইভিংয়ের জেরে হতে পারে ৬ মাসের জেল

104

মুম্বই: মুম্বইয়ের ট্র্যাফিক নিয়ম আরও কড়াকড়ি করল পুলিশ-প্রশাসন। ভুল পথে গাড়ি চালানো থেকে শুরু করে যে কোনও প্রকার ট্র্যাফিক নিয়ম লঙ্ঘনের ক্ষেত্রেই কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের কথা স্পষ্ট করেছে মুম্বই ট্র‍্যাফিক। হতে পারে জরিমানার পাশাপাশি ছয় মাস পর্যন্ত জেল। প্রয়োজন অনুসারে নিয়মভঙ্গকারীর বাড়ি পৌঁছে যেতে পারে ট্রাফিক পুলিশের অফিসারেরা।

এতদিন মোটর ভেহিকেল অ্যাক্টের অধীনে শুধুমাত্র জরিমানা করা হত ট্র‍্যাফিক আইন ভঙ্গকারীদের। যাঁরা বারংবার জরিমানা দিতে অস্বীকার করতেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হত ট্রাফিক বিভাগের তরফে। জরিমানা না দিলে এই সংক্রান্ত যাবতীয় নথি রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট অফিসারের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হত। সেই মতো ওই আইনভঙ্গকারীর বিরুদ্ধে শো-কজ নোটিশও জারি করা হত। এরপরও যদি কাজ না হয়, তাহলে লাইসেন্স সাসপেন্ড হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। তবে নতুন আইনে বদল আসতে পারে। ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। মুম্বই ট্রাফিক পুলিশ সূত্রে খবর, ৪ জানুয়ারি থেকে ১২১টি টু-হুইলার, ২৩টি ফোর-হুইলার ও ১১টি থ্রি-হুইলারের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই কয়েক দিনে সব মিলিয়ে মোট ১৫৫জন বাইক আরোহীকে আইপিসির ২৭৯ ধারার অধীনে আটক করা হয়েছে। এফআইআর দায়ের করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে।

- Advertisement -

এবিষয়ে মুম্বই ট্র্যাফিক পুলিশের জয়েন্ট কমিশনার যশস্বী যাদব জানান, ভুল সাইডে গাড়ি চালালে বা রেসিং করলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। এবার রাস্তায় কোনও রকম নিয়ম ভাঙলে, তা বরদাস্ত করা হবে না। যদি কেউ ট্র্যাফিক নিয়ম ভাঙেন বা বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালান, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনওভাবেই তাঁদের ছাড়া হবে না। প্রয়োজনে গাড়ির নম্বর ট্র্যাক করে, অপরাধীদের বাড়ি গিয়ে আটক করা হবে। এক্ষেত্রে অপরাধীদের ১,০০০ টাকার জরিমানা বা ৬ মাস পর্যন্ত জেল হতেও পারে। বর্তমানে এই সম্পর্কিত একাধিক বিষয়ে পর্যালোচনা করছে পুলিশ-প্রশাসন। আগামী এক-দুই মাসের মধ্যেই নয়া আইন বলবৎ হতে পারে বলেই জানা গিয়েছে।