চ্যাংরাবান্ধা ২৫ জানুয়ারি: স্কুল বন্ধ হতেই নিয়মিত বসছে মদ জুয়ার আড্ডা। মদ্যপানের পর মদের বোতলগুলিও যেখানে সেখানে ফেলে রাখা হচ্ছে। পরদিন বিদ্যালয়ে গিয়ে ক্ষুদে পড়ুয়াদের ওই মদের বোতল সরিয়ে দূরে ফেলতে হচ্ছে। এমনটাই অভিযোগ মেখলিগঞ্জ ব্লকের চ্যাংরাবান্ধা গ্রামপঞ্চায়েতের বোকনাবান্ধা নেতাজি ফোর্থ প্ল্যান প্রাথমিক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। বিদ্যালয়ের তালা ভেঙে চুরির ঘটনাও ঘটছে মাঝেমধ্যে। শুক্রবারও স্কুল ভবনের তালা ভেঙে নলকূপের পানীয় জলের পাইপ ভেঙে ফেলা হয়েছে। ভবনের ভিতরে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। যা নিয়ে চিন্তিত স্থানীয় বাসিন্দাসহ বিভিন্ন অভিভাবকও। তাদের কথায় ,বিদ্যালয় চত্বরে মাঝেমধ্যেই মদের বোতল পড়ে থাকছে। বিষয়টি বাড়িতে গিয়ে তাদের ছেলেমেয়েরাও জানাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বিদ্যালয়ে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা জরুরী বলে তারা মনে করছেন। বিদ্যালয় চত্বরে মদের বোতল পড়ে থাকার বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৃনালকান্তি রায় বলেন, ‘প্রায়ই বিদ্যালয় খোলার পর দেখা যাচ্ছে এখানে ওখানে মদের বোতল, মাংসের টুকরো ইত্যাদি পড়ে রয়েছে। সেগুলি নিয়মিত সাফাই করে তাদের ক্লাস করতে হচ্ছে। তালা ভেঙে চুরির ঘটনাও ঘটছে।এবিষয়ে শনিবার মেখলিগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে বলে মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ জানিয়েছে।