স্ত্রীকে মারধরে বাধা দেওয়ায় আত্মীয়কে খুন! ধৃত ১

166

বর্ধমান: স্ত্রীকে মারধরে বাধা দেওয়ায় শ্বশুর বাড়ির আত্মীয়কে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার হল জামাই। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানার গিরিগড়নগর এলাকায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম আলি মোল্লা(৫২)। কালনার নিভুজি এলাকার বাসিন্দা। ধৃত মোস্তাফা খান, মন্তেশ্বরের মাসডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা। সুনির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ সোমবার ধৃতকে পেশ করে কালনা মহকুমা আদালতে। বিচারক ধৃতকে ৫ দিন পুলিশি হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

জমাইয়ের দৃষ্টান্তমূলক সাজার দাবি করেছে বধূর বাপের বাড়ির সদস্যরা। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কয়েক বছর আগে মোস্তাফা খানের সঙ্গে বিয়ে হয় গিরিগড়নগরের মেয়ে মোসরাকিনার। শ্বশুর বাড়িতে অশান্তির কারণে মোসরাকিনা বিবি ৩-৪ মাস আগে তাঁর বাপের বাড়ি চলে যায়। মোস্তাফা খান রবিবার সকালে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি শুরু করে। অশান্তি চলাকালীন মোস্তফা তাঁর স্ত্রীকে মারধর শুরু করে বলে অভিযোগ। তা দেখে মোসরাকিনার বাপের বাড়িতে বেড়াতে আসা আত্মীয় সাহের আলি মোল্লা মোস্তাফাকে বাধা দেন। তাতেই ক্ষিপ্ত হয়ে মোস্তাফা সেই প্রৌঢ়কে ব্যাপক মারধর করে। মারাত্মক জখম হন সাহের আলি। তাঁকে ওই দিনই বর্ধমানের একটি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়। সেখানে রাতেই তিনি মারা যান। আত্মীয়র এই মৃত্যু মেনে নিতে না পেরে বধূ মোসরাকিনার বাপের বাড়ির লোকজন ওইদিনই জামাইরের বিরুদ্ধে মন্তেশ্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করে পুলিশ মোস্তফা খানকে গ্রেপ্তার করে।

- Advertisement -