দুর্গাপুর ব্যারেজের লকগেটের মেরামত শুরু

433

দুর্গাপুর: অবশেষে জলশুন্য হল দুর্গাপুর ব্যারেজ। নানা সমস্যা ও জটিলতা পার করে শেষ পর্যন্ত ৫ দিন পরে বুধবার দুপুরে দুর্গাপুর ব্যারেজের ভেঙে যাওয়া ৩১ নম্বর লক গেট মেরামতের কাজ শুরু হল। দুর্গাপুর ইস্পাত কারখানা বা ডিএসপির সাহায্যে রাজ্য সেচ দপ্তর এই মেরামতের কাজ করবে। সব কিছু ঠিক থাকলে বৃহস্পতিবার দুপুরের মধ্যে এই কাজ শেষ হয়ে যাবে।

তারপর সেচ দপ্তর ডিভিসিকে মাইথন ও পাঞ্চেত থেকে জল ছাড়ার জন্য বলবে। সেইমত ডিভিসি জল ছাড়বে। সেই জল দুর্গাপুর ব্যারেজে আসতে ১৬ থেকে ১৮ ঘণ্টা সময় লাগবে। সেক্ষেত্রে দুর্গাপুর ব্যারেজে দামোদর নদীর জল স্তর ঠিক হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে বৃহস্পতিবার রাত হয়ে যাবে বলে জেলা প্রশাসন ও সেচ দপ্তর মনে করছে।

- Advertisement -

এদিকে, দুর্গাপুর ব্যারেজ জলশুন্য হয়ে যাওয়ায় গত ৫ দিন ধরে দুর্গাপুর পুরনিগম ও পাশের জেলা বাঁকুড়ার বিভিন্ন এলাকার জলের সমস্যা দেখা দিয়েছে। যদিও জেলা প্রশাসন, পুরনিগম কর্তৃপক্ষ ও পিএইচই ট্যাঙ্কার ও পাউচের মাধ্যমে জল দিয়ে বাসিন্দাদের পানীয়জলের সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করছে। জলের অভাবে দুর্গাপুর ও বাঁকুড়ার দুটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যহত হয়েছে। রাজ্য সেচ দপ্তরের চিফ ইঞ্জিনিয়ার জয়ন্ত দাস বলেন, এদিন দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ লক গেট মেরামতের কাজ শুরু করা হয়েছে। কমবেশি ২০ ঘণ্টার মত সময় লাগবে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই কাজ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার সকালে আচমকাই দূর্গাপুর ব্যারেজের ৩১ নম্বর লক গেট ভেঙে পড়ে। যা নিয়ে রাজনৈতিক চাপান উতর শুরু হয়ে যায় তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির নেতা ও সাংসদদের মধ্যে। তিন বছর আগে ২০১৭ সালে একই ঘটনা ঘটেছিল। তখন ১ নম্বর লক গেট ভেঙে ছিল।