ভারতের থেকে পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্র বেশিঃ রিপোর্টে দাবি

217

স্টকহোম, ১৯ জুনঃ বিশ্বে পরমাণু অস্ত্র কমাতে যতই উদ্যোগ নেওয়া হোক না কেন, সে পথে হাঁটতে নারাজ পাকিস্তান। পরমাণু অস্ত্রের সম্ভার বাড়িয়ে চলেছে তারা। দেশের বাজেটের বড়ো অংশ তারা সেই কাজেই খরচ করছে। স্টকহোম পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউট (এসআই পিআরআই) এর রিপোর্টে এই তথ্য উঠে এসেছে।

ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, পরমাণু অস্ত্র ভাণ্ডার কমানোর দিকে নয়, তাকে নতুনভাবে কাজে লাগানোর যে নতুন ট্রেন্ড শুরু হয়েছে তা উদ্বেগজনক। পরমাণু অস্ত্র তৈরি বন্ধ করলেই শুধু হবে না, পুরোনো অস্ত্র ভাণ্ডার ব্যবহার থেকেও বিরত থাকতে হবে। সমস্ত পরমাণু শক্তিধর  দেশগুলিকে এটাই নিশ্চিত করতে হবে। রিপোর্টে আরও দাবি করা হয়েছে, বছরের শুরুতে আমেরিকা, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স , চিন, ভারত, পাকিস্তান, ইজরায়েল এবং উত্তর কোরিয়া এই দেশগুলি মিলিয়ে মোট নিউক্লিয়াল ওয়ারহেড ছিল ১৪,৪৬৫টি। গত বছর যা ছিল ১৪,৯৩৫টি। সংখ্যাটি কমলেও প্রয়োজনের তুলনায় তা একেবারেই নগণ্য। মোট ওযারহেডের মধ্যে আমেরিকা এবং রাশিয়ার কাছেই ৯২ শতাংশ রয়েছে। বাকি দেশগুলির মধ্যে ব্রিটেনের কাছে ২১৫টি, ফ্রান্সের কাছে ৩০০টি , চিনের কাছে ২৮০টি, ভারতের কাছে ১৩০-১৪০টি, পাকিস্তানের কাছে ১৪০-১৫০টি, ইজরায়েলের কাছে ৮০টি  এবং উত্তর কোরিয়ার কাছে আছে ১০-২০টি পরমাণু ওয়ারহেড। উত্তর কোরিয়া পরমাণু অস্ত্র তৈরিতে দ্রুত উন্নতি করছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে রিপোর্টে।

- Advertisement -

ছবিঃ সংগৃহীত