পাঁচ বছর পর বিধায়ক পাওয়ার আশায় মেটেলি ব্লকের বাসিন্দারা

83

মেটেলি: পাঁচ বছর পর বিধায়ক পাওয়ার আশায় মেটেলি ব্লকের বাসিন্দারা। এমনটাই ধারণা মেটেলি ব্লকের রাজনৈতিক মহলের।মেটেলি ব্লকের ইনডং মাটিয়ালি গ্রাম পঞ্চয়েত এলাকা থেকেই এবার নাগরাকাটা বিধানসভার বিধায়ক হবে বলে অনেকের মত। মেটেলি, নাগরাকাটা ব্লক সহ নবগঠিত বানারহাট ব্লকের দুটি গ্রাম পঞ্চয়েত এলাকা নিয়ে নাগরাকাটা বিধানসভা। এর আগে ২০১১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত নাগরাকাটা বিধানসভার বিধায়ক ছিলেন জোসেফ মুন্ডা। এবারেরও বিধানসভা নির্বাচনেও তিনি তৃণমূলের প্রার্থী। ২০১৬ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত নাগরাকাটা বিধানসভার বিধায়ক ছিলেন নাগরাকাটা ব্লকের বাসিন্দা শুক্রা মুন্ডা। এবারের নাগরাকাটা বিধানসভায় মূল লড়াই তৃণমূল ও বিজেপি-র মধ্যে। দুই প্রার্থীর বাড়িই মেটেলি ব্লকের ইনডং মাটিয়ালি গ্রাম পঞ্চয়েত এলাকায়। তৃণমূলের প্রার্থী জোসেফ মুন্ডার বাড়ি জুরন্টি চা বাগান ও বিজেপি প্রার্থী পুনা ভেংরার বাড়ি ইনডং চা বাগানে। দু’জনই ইনডং মাটিয়ালি গ্রাম পঞ্চয়েত এলাকার ভোটার। নাগরাকাটা বিধানসভার মোট প্রার্থী সংখ্যা ৬ জন। এর মধ্যে ৪ জনের বাড়ি মেটেলি ব্লকে। তৃণমূল ও বিজেপি প্রার্থী ছাড়াও নির্দল প্রার্থী রবার্ট মুন্ডা ও আশান তির্কির বাড়িও মেটেলি ব্লকে। সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত কংগ্রেস প্রার্থী সুকবির সুব্বা ও প্রোগ্রেসিভ পিপলস পার্টির বেনাম ওরাওঁ-এর বাড়ি নাগড়াকাটা ব্লকে। ৬ জন প্রার্থীই জয়ের বিষয়ে আশাবাদী। তবে জয় অবশেষে কার হয় আগামী ২ মে ভোট গণনার পরই তা জানা যাবে।