ঝোপের আড়ালে সুন্দরতলার যাত্রী প্রতীক্ষালয়

385

কুমারগঞ্জ : বছর খানেক আগে বাসের ধাক্কায় ভেঙে গুঁড়িয়ে গিয়েছিল সুন্দরতলার প্রতীক্ষালয়টি। কিন্তু আজও সেই প্রতীক্ষালয়ে সংস্কারে নজর দেয়নি কেউ। ফলে বাসয়াত্রীদের সুবিধায় তৈরি প্রতীক্ষালয়টি এখন ঝোপঝাড়ের আড়ালে জীর্ণ দশা নিয়ে মুখ লুকিয়েছে।

পতিরাম-কুমারগঞ্জ রুটে মোহনা পঞ্চায়েতের সুন্দরতলা বাসস্টপটির বেহাল দশা নিয়ে অসন্তোষ দানা বাঁধছে এলাকাবাসীর মধ্যে। বেশ কয়েক বছর আগে যাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু বয়সের ভারে একসময় সেটি জরাজীর্ণ হয়ে পড়ে। এক বছর আগে এক পথ দুর্ঘটনায় এক যাত্রীবোঝাই বাসের ধাক্কায় প্রতীক্ষালয়টিই পুরোপুরি ভেঙে গুঁড়িয়ে যায়। গোলাবাড়ি হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা থেকে শুরু করে আশপাশের গ্রামগুলির মানুষজন এই সুন্দরতলা বাসস্টপ দিয়ে কুমারগঞ্জ, পতিরাম, বালুরঘাট ইত্যাদি জায়গায় যাতায়াত করেন। তাঁদের জন্য সুন্দরতলায় যাত্রী প্রতীক্ষালয়ে গুরুত্ব অপরিসীম। বর্ষার সময় বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচতে এই প্রতীক্ষালয়টিই এলাকাবাসী ব্যবহার করতেন। প্রতীক্ষালয় ভেঙে পড়ায় বৃষ্টির সময় ভিজে অনেকে নাস্তানাবুদ হন। তাই এলাকার মানুষ সুন্দরতলায় যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি সংস্কার করার দাবি তুলেছেন। এলাকার বাসিন্দা ভবেশ মণ্ডল বলেন, প্রায় এক বছর হল বাস দুর্ঘটনায় সুন্দরতলা বিশ্রামাগারটি ভেঙে গিয়েছে। কিন্তু প্রশাসনের তরফে আজও সেটি সংস্কার করা হয়নি। ফলে যাতায়াত করতে গিয়ে খুব সমস্যা হচ্ছে। কারণ বর্ষাকালে খোলা আকাশের নীচে দাঁড়িয়ে থাকতে খুব কষ্ট হয়।

- Advertisement -

গোলাবাড়ি হাইস্কুলের ছাত্র নয়ন দাস জানায়, এখন স্কুল বন্ধ রয়েছে। ফলে সমস্যা হচ্ছে না। কিন্তু স্কুল খুললে ওখান থেকে বাস ধরতে হয়। ফলে প্রতীক্ষালয় না থাকলে সমস্যা হবেই। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকারাও সুন্দরতলা যাত্রী প্রতীক্ষালয়ের গুরুত্ব এক বাক্যে স্বীকার করেছেন। এবিষয়ে মোহনা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান লক্ষ্মী দাস ঘোষ বলেন,  আমরা কুমারগঞ্জ ব্লক প্রশাসনে বিষয়টি একাধিকবার জানিয়েছি। যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি সংস্কারের আবেদন করেছি। এটা হওয়া খুব দরকার। বিষয়টি নিয়ে কুমারগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি জ্যোত্স্না ঘোষ বলেন, সুন্দরতলা যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি বাস দুর্ঘটনায় ভেঙে যাওয়ার বিষয়টি জানি। এটির অবশ্যই পুনর্নির্মাণ করা প্রয়োজন। বর্তমানে করোনার জন্য উন্নয়নের অনেক কাজ বন্ধ রয়েছে। আগামীদিনে ব্লক প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে কোন তহবিল থেকে এটি পুনর্নির্মাণ করা যায়, আমরা চিন্তাভাবনা করছি। তবে কোনও এক তহবিল থেকে সুন্দরতলা যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি অবশ্যই তৈরি হবে বলে জ্যোত্স্না ঘোষ আশ্বাস দেন।