জগদ্ধাত্রী পুজোর আনন্দে মাতলেন বাসিন্দারা

238

ঘোকসাডাঙ্গা: দুর্গাপুজো, কালীপুজো মিটলেও বাঙালির উৎসবের মরশুম শেষ হয়ে যায়নি। হাজির হয়েছে জগদ্ধাত্রী পুজো। মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের বাঘমারা শুখানদিঘি, রামঠেঙ্গা ও খড়িকাবাড়ি এই তিন গ্রামের মানুষ জগদ্ধাত্রী পুজোয় মেতে উঠেছেন। সোমবার ছিল নবমী। এদিন সকাল থেকেই মণ্ডপে মণ্ডপে মানুষের ভিড় উপচে পড়ে। বাঘমারা শুখানদিঘির পুজো এবার ১৪৯-তম বর্ষে পা দিল। পুজো কমিটির পক্ষে প্রশান্ত বর্মন জানান, গ্রামের মানুষের চাঁদায় এই পুজো হয়। এবছর প্রতিমা দান করেছেন রবীন্দ্রনাথ বর্মন। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবছর রাতে কোনও যাত্রাপালা বা গানের আসর অনুষ্ঠিত হবে না। আগামী বছর আমাদের ১৫০-তম বর্ষ। তাই বড় করে পুজো করা হবে।

রুইডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের রামঠেঙ্গা সর্বজনীন জগদ্ধাত্রী পুজো এবছর ১৩০-তম বর্ষে পা দিল। গ্রামের মহিলা-পুরুষ সকলেই পুজোর আনন্দে সামিল হন। এদিন গোটা গ্রাম পুজো মণ্ডপে একত্রে বসে খিচুড়ি প্রসাদ গ্রহণ করে। পাশাপাশি খড়িকাবাড়ির জগদ্ধাত্রী পুজো এবছর ৪০-তম বর্ষে পা দিল। রামঠেঙ্গা পুজো কমিটির সম্পাদক বিষ্ণু গোপ ও পুজো কমিটির অন্যতম সদস্য গোপাল দেবনাথ জানান, এবছর করোনা পরিস্থিতির কারণে কোনও বড় ধরণের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে না। প্রতিবছর এখানে জগদ্ধাত্রী পুজো উপলক্ষ্যে যাত্রাপালা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হত। কিন্তু এবছর তা হবে না।

- Advertisement -