ভোট প্রার্থীদের কাছে হাসপাতাল নির্মাণের দাবি জানাবেন বাসিন্দারা

97

হেমতাবাদ: হাসপাতাল নির্মাণই শুধু নয়, বিএসএফের হেনস্তার হাত থেকেও অব্যাহতি চান উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের চৌনগর গ্ৰাম পঞ্চায়েতের মাকড়হাট, বামোর সীমান্ত এলাকার বাসিন্দারা। ভোট এগিয়ে আসতেই বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এই এলাকায় হাসপাতাল নির্মাণের দাবি তুলেছেন বাসিন্দারা। যে প্রার্থীই ভোট চাইতে আসুন না কেন সীমান্তবর্তী গ্রামে হাসপাতাল গড়ার পাকা কথা দিতে হবে তবেই মিলবে ভোট।

উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের চৌনগর গ্ৰাম পঞ্চায়েতের মাকড়হাট, বামোর সীমান্ত এলাকায় এমনটাই মত বাসিন্দাদের। হাত বাড়ালেই বাংলাদেশ। হাসপাতাল পৌঁছোনোর আগেই ভুটভুটিতেই নবজাতকের জন্ম হয়ে যায়। ইঞ্জিন চালিত ভুটভুটিই সীমান্তবাসীদের জীবনরেখা। বাইরের দুনিয়ার যোগাযোগের একমাত্র বাহন।অন্যদিকে, বিসএফের রাস্তা দিয়ে যাতায়াতের কারণেও হেনস্তা হতে হয় বাসিন্দাদের। পঞ্চান্ন বছরের কুদ্দুস আলি জানান, সন্ধ্যা সাতটার পর হাট করে বাড়ি ঢুকতে পারেননি অনেক দিন। বিএসএফ রাস্তায় আটকে রাতভর ক্যাম্পে বসিয়ে রেখেছিল। মেয়ে রাতে ভাত বেড়ে অপেক্ষা করছিল দেখা পর্যন্ত করতে দেয়নি।

- Advertisement -

সীমান্ত বাহিনীদের রাস্তা ধরে রোজ যাতায়াত করতে হয় তাঁদের। বিকল্প কোনও রাস্তা আজও গড়ে ওঠেনি। ফলে একটু বেচাল হলেই হাজার প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয় সীমান্তবাহিনীর জওয়ানদের। রোজ রোজ এই কষ্ট আর সহ্য হয় না কুদ্দুস আলিদের। অন্যদিকে কাঁটাতারের ওপারে ভারত ভূখণ্ডেই এপারের বাসিন্দাদের কয়েকশো আবাদি জমি রয়েছে অথচ সেখানে বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষীদের রোষানলের মুখে প্রায়শই পড়তে হয় মহিষগাঁও, মাকড়হাট সীমান্ত বাসিন্দাদের। বছর চারেক আগে চাষ করতে গিয়ে বিজিবি’র গুলিতে প্রাণ হারান ভারতীয় কৃষক। একটাই প্রাথমিক স্কুল রয়েছে। নেই কোনও স্বাস্থ্যকেন্দ্র।