বালুরঘাট, ৭ মেঃ অবসরের পর কয়েক মাস কেটে গেলেও এখনও মেলেনি প্রাপ্য গ্র্যাচুইটি ও পেনশন। শেষ পর্যন্ত ধরনায় বসার সিদ্ধান্ত নিলেন অবসরপ্রাপ্ত চতুর্থ শ্রেণির কর্মী।

১৯৭৯ সালে বালুরঘাট হাসপাতালে গ্রুপ-ডি পদে কাজে যোগ দিয়েছিলেন দিলীপ জমাদার নামে ওই ব্যক্তি। গত ২০১৮ সালের ৩১শে অক্টোবর তিনি কাজ থেকে অবসর নেন। দীলিপবাবু বলেন, প্রাপ্য অধিকারের জন্য গত সাত মাস ধরে লড়াই করছি। কোনো কারণ ছাড়াই কেন এভাবে হয়রান করা হচ্ছে বুঝতে পারছি না। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই সমস্যা না মিটলে, সুপার অফিসের সামনে পরিবার নিয়ে ধরনায় বসব। হাসপাতাল সুপার তপন কুমার বিশ্বাস বলেন, অবসরপ্রাপ্ত ওই কর্মীর এমন হয়রানি হওয়ার কথা নয়। ঘটনার তদন্ত করা হবে। পাশাপাশি কোন কর্মীর জন্য তাঁর হয়রানি হয়েছে তাঁকে চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।