গণ্ডার দেখেই সেলফি জ্বরে পর্যটকরা, বাধা দিল বনদপ্তর

311

চালসা: জঙ্গল ছেড়ে নদীর তীরে গণ্ডার। মিঠে রোদে গাঁ ভাসিয়ে চলছে হেলেদুলে। মুহূর্তেই বিষয়টি নজরে আসে পর্যটকদের। এরপরেই শুরু হয় সেল্ফি তোলার হিড়িক। যদিও বিষয়টি নজরে আসতেই তেড়ে আসেন বনকর্মীরা। বাধা দেন সেলফি তোলায়। ঘটনায় খানিক ক্ষুন্ন হন পর্যটকেরা। দিনদুপুরে প্রকাশ্যে গণ্ডার। রবিবার এহেন দৃশ্য নজরে আসে মূর্তি নদীর তীরে। সেখানে উপস্থিত পর্যটকদের নজরে আসতেই হৈচৈ পড়ে যায়। আশপাশ থেকেও ছুটে আসেন স্থানীয়রা।

নদীর উলটো দিকের তীর এবং সেতুর ওপর পর্যটকের ভিড় ক্রমেই বাড়তে থাকে। শুরু হয় ছবি তোলা এবং সেলফি তোলার হিরিক। বিষয়টি নজরে আসে মূর্তি বিটের বনকর্মীদের। তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছে পর্যটকদের সেখান থেকে সরিয়ে দেন তাঁরা। বাধা দেওয়া হয় ছবি তোলার ক্ষেত্রেও। বনদপ্তরের তরফে স্পষ্ট করা হয়েছে পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থেই সেখান থেকে সকলকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

- Advertisement -

বনদপ্তর সূত্রে খবর, এদিন দুপুরে আচমকাই গরুমারার জঙ্গল থেকে বেরিয়ে আসে গণ্ডারটি। যদিও খানিক সময় বাদেই ফের জঙ্গলে ফিরে যায় ওই গণ্ডারটি। বনকর্মীরা জানান, মাঝেমধ্যেই ওই গণ্ডারটি জঙ্গল থেকে বেরিয়ে পড়ে। কিছুদিন আগেও ওই গণ্ডারটি মূর্তি-খুনিয়া মুখী রাজ্য সড়ক পার হয়ে চলে এসেছিল নদীর তীরে। বনকর্মীদের কথায় ওই গণ্ডারটি মূলত চাপরামারী, পনঝোরা ও গরুমারা জঙ্গল এলাকা জুড়েই অবাধ ঘোরাফেরা করে।